অঘটন এড়িয়ে শেষ ষোলোয় রিয়াল

স্পোর্টস: গত মৌসুমের কথা বেশ ভালোভাবেই মনে রেখেছেন কোচ কার্লো আনচেলত্তি। যে কারণে শক্তিশালী দলই গঠন করেছিলেন তিনি তৃতীয় সারির দল আলকোয়ানের বিপক্ষে কোপা ডেল রে’র এই ম্যাচে। গত মৌসুমে এই আলকোয়ানোর কাছে হোঁচট খেয়েই শেষ ষোলোয় ওঠার আগে ছিটকে পড়েছিল লজ ব্লাঙ্কোজরা। আনচেলত্তি হয়তো গত মৌসুমে ডাগআউটে ছিলেন না। তবে ফুটবলার যারা খেলেছেন, তারা তো ছিলেন। যে কারণে একটা শঙ্কা থেকে গিয়েছিল তাদের মনে। বারবার না আবার পঁচা শামুকে পা কাটতে হয়! শঙ্কাও জানিয়েছিল আলকোয়ানো। রিয়াল মাদ্রিদের একটি গোল শোধ করে দিয়েছিল তারা। তবুও শেষ পর্যন্ত এডার মিলিটাও, মার্কো আসেনসিও এবং হুয়ান হোসের (আত্মঘাতি) গোলে ৩-১ ব্যবধানে আলকোয়ানোকে হারিয়ে শেষ ষোলো রাউন্ড নিশ্চিত করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। আলকোয়ানোর ঘরের মাঠে ম্যাচের ৩৯ মিনিটে এডার মিলিটাও’র গোলে প্রথমে লিড নেয় রিয়াল। এই এক গোলে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় মাদ্রিদের ক্লাবটি। তবে বিরতি থেকে ফেরার পর তাদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয় আলকোয়ানো। ৬৬ মিনিটে তাদের ফরোয়ার্ড দানি ভেগা গোল করে সমতা ফেরান ম্যাচে। ১-১ গোলে সমতায় আসার পর রিয়ালের মনে সেই শঙ্কাই জেগে উঠেছিল। শেষ পর্যন্ত বদলি খেলোয়াড় মার্কো আসেনসিও এবং ইসকোর গোলে ৩-১ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আনচেলত্তির শিষ্যরা। যদিও ইসকোর করা গোলটি আত্মঘাতি থেকেই হয়। কারণ, তার নেওয়া শট আলকোয়ানোর রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হুয়ান হোসের গায়ে লেগে জালে আশ্রয় নেয়। ইনজুরির কারণে এই ম্যাচে খেলতে পারেননি করিম বেনজেমা, লুকা মদরিচ ও ফারল্যান্ড মেন্ডি। করোনার কারণে খেলতে পারেননি ভিনিসিয়ুস জুনিয়র ও লুকা জোভিক। কোচ কার্লো আনচেলোত্তি এদিন বিশ্রাম দেন নিয়মিত গোলরক্ষক থিবাত কুর্তোয়াকে। তার পরিবর্তে গোলপোস্টের সামনে দাঁড়ান আন্দ্রে লুনিন। বেশ কয়েকজন তারকা খেলোয়াড় ছাড়া রিয়ালের এদিন দারুণ পরীক্ষা নেয় তৃতীয় সারির দল আলকোয়ানো। তবে সে পরীক্ষায় উতরে কোপা ডেল রের শেষ ষোলোতে জায়গা করে নেয় লজ ব্লাঙ্কোজরা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *