অফিসে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে ভারতে নতুন নির্দেশনা

বিদেশ : ভারতে লকডাউন শিথিলের পর ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করেছে অফিস-আদালত। কিছুদিনের মধ্যেই চালু হবে সরকারি-বেসরকারি সব অফিস। এমন পরিস্থিতি কর্মক্ষেত্রকে করোনাভাইরাসমুক্ত রাখতে নতুন নির্দেশনা জারি করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। নির্দেশনায় বলা হয়েছে, শুধু উপসর্গহীন কর্মীরাই অফিস করার অনুমতি পাবেন।

জ্বর, সর্দি-কাশি নিয়ে অফিসে যাওয়া যাবে না। অফিসে কোনও অতিথি বা ভিজিটর এলে তার ক্ষেত্রেও একই নিয়ম। যেসব কর্মী কোয়ারেন্টাইন জোনে থাকেন তারাও অফিসে যেতে পারবেন না। ওই এলাকা কোয়ারেন্টাইনমুক্ত না হওয়া পর্যন্ত তাদের বাসায় থেকেই কাজ করতে হবে। অফিসে সবাইকেই ফেস কভার বা মাস্ক পরতে হবে। এগুলো না পরলে কাউকে অফিসে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না।

শুধু কর্মী নয়, অফিস কর্তৃপক্ষের জন্যেও রয়েছে কড়া সতর্কতা। তাদের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, পুরো অফিস জীবাণুমুক্ত করতে হবে। কর্মীদের সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হবে। বারবার হাত ধুতে বা স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। সব কর্মীর ফোনে আরোগ্য সেতু অ্যাপ থাকা বাধ্যতামূলক। সবার থার্মাল স্ক্রিনিং করতে হবে। অন্তত এক মিটার দূরত্ব বজায় রেখে কর্মীদের বসাতে হবে।

বৃহস্পতিবার এসব নির্দেশনা জারি করেছে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। অফিস ছাড়া হোটেল, রেস্তোরাঁ ও ধর্মীয় স্থানের জন্যেও রয়েছে বিশেষ পরামর্শ। আগামী ৮ জুন থেকে কার্যকর হবে এ নির্দেশনা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *