অবশেষে আটঘরিয়ায় হিন্দু পল্লীর বন্ধ রাস্তা খুলে দিলো পুলিশ!

স্টাফ রিপোর্টার : গত বুধবার বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় “আটঘরিয়ায় হিন্দু পল্লীসহ দুই গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে প্রভাবশালীমহল” শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় পাবনা পুলিশ সুপারের নির্দেশে থানার ওসি’র হস্তক্ষেপে অবশেষে আটঘরিয়ায় হিন্দু পল্লীসহ দুই গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তাটি খুলে দেওয়া হয়েছে। আর এই উদ্যোগের ফলে পাবনা পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান, আটঘরিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম রতনসহ আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এলাকাবাসী।

হিন্দুপল্লীর বাসিন্দা শ্রী লংক কুমার সরকার বলেন, মানুষের চলাচলের রাস্তা খুলে দেওয়ায় শুধু হিন্দু পল্লীর বাসিন্দা নয় পুরো এলাকার মানুষের মধ্যে জনপ্রতিনিধি এবং পুলিশের প্রতি আস্থা আরো বেড়েছে।

একাধীক গ্রামবাসী বলেন, রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়া পৌর মেয়র শহিদুল ইসলাম রতন ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করে রাস্তা খুলে দেওয়ার জন্য দখলদারদের সাফ জানিয়ে দেন।
এ বিষয়ে আটঘরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: হাফিজুর রহমান বলেন, পুলিশ সুপারের নির্দেশে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করে মানুষের চলাচলের রাস্তা খুলে দিতে বলা হলে বৃহস্পতিবার দুপুরে তারা রাস্তায় ট্রিনের বেড়া খুলে দেন। সাধারণ মানুষের চলাচলের জন্য জরুরী ভিত্তিতে পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান এর নির্দেশে তা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পৌর সভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম রতন বলেন, আমার পৌর এলাকার মানুষের চলাচলের রাস্তা কেউ বন্ধ করতে পারবেনা।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার পাবনার আটঘরিয়া পৌসভার ৭নং ওয়ার্ডের দেবোত্তর মহল্লার হিন্দু পল্লীর বাসিন্দারাসহ দুই গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তা ট্রিনের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেয় এক প্রভাবশালী ব্যক্তি। এতে এই রাস্তা দিয়ে দুই গ্রামের শাতাধিক পরিবারের সদস্যরা চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন এলাকাবাসী।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *