অবশেষে পুলিশে পরিবর্তন আনছে যুক্তরাষ্ট্র

বিদেশ : পুলিশি নির্যাতনে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড মারা যাওয়ার পর ফুঁসে উঠেছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে বিক্ষোভ চলছে ট্রাম্পের দেশে। দেশটির প্রত্যেকটি শহর-অঙ্গরাজ্য ছাড়িয়ে এ বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। এরইমধ্যে আটলান্টায় পুলিশের গুলিতে রেশার্ড ব্রুকস নামের আরেক কৃষ্ণাঙ্গের মৃত্যু হয়েছে।

ফলে কিছুতেই বিক্ষোভ থামানো যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে। কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার ঘটনায় যখন টালমাটাল যুক্তরাষ্ট্র, তখন দেশটির পুলিশ বিভাগে সংস্কার আনার ঘোষণা দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মঙ্গরবার এ-সংক্রান্ত এক আদেশে সই করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বার্তা সংস্থাকে উদ্ধৃত করে চ্যানেলনিউজএশিয়া জানিয়েছে, পুলিশে সংস্কার-বিষয়ক এক নির্বাহী আদেশ মঙ্গলবার সই করবেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। একই সঙ্গে, সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে হোয়াইট হাউস। তবে পুলিশ বিভাগের সংস্কারে কী কী পরিবর্তন আসছে তা উল্লেখ করা হয়নি প্রতিবেদনে।

এতে বলা হয়েছে, এ বিষয়ে আলাদা আলাদা প্রস্তাব দেয়ার জন্য কাজ করছেন ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকানরা। এদিকে আটলান্টায় পুলিশের গুলিতে কৃষ্ণাঙ্গ রেশার্ড ব্রুকস নিহতের ঘটনাকে ‘ভয়ানক ও খুবই বিরক্তিকর’ ঘটনা বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

অন্যদিকে রেশার্ড ব্রুকসের মৃত্যুকে হত্যাকা- বলে ঘোষণা দিয়েছে ফুল্টন কাউন্টি মেডিকেল এক্সামিনারস অফিস। পিঠে দুটি গুলি লাগায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ ও অভ্যন্তরীণ অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে ময়নাতদন্তে প্রমাণিত হয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *