আটঘরিয়ায় এক যুবককে মাথার চুল কেটে মারপিটের অভিযোগ ; মামলা দায়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা : পাবনার আটঘরিয়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক যুবককে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে রাতভর আটকে রেখে মারপিট করে মাথার চুল কেটে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শনিবার আটঘরিয়া থানায় নারীসহ ৪ জনকে আসামী কেরে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ১৩।

অভিযোগে প্রকাশ, আটঘরিয়া উপজেলার চাঁদভা ইউনিয়নের নাগদহ গ্রামে গত ২৩ জুলাই রাত সাড়ে ১১টার দিকে মো: ফজল হোসেন, লিমন, হাসিব নিজ বাড়ির সামনে থেকে একই গ্রামের মো: ফজলুল হকের ছেলে মো: কাজল হোসেন (২৩) কে মুখ চেপে ধরে রাতভর একটি ঘরে নিয়ে মাথার চুল কেটে, লোহার রড দিয়ে বেদম মারপিটের পর গুরুত্বর আহত করে ফেলে রাখে। পরিবারের লোকজন এদিন অনেক খোঁজাখুজির পর না পেয়ে পরের দিন আটঘরিয়া থানায় একটি নিখোঁজ ডায়েরী করেন। ডায়েরী নং ৯৮৬ তারিখে-২৪ জুলাই ২০২২।

পরে এলাকাবাসী খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আটঘরিয়া ও পরে অবস্থার অবনতি হলে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ বিষয়ে আহত কাজল হোসেন বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফজল গংয়েরা আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে বেদম মারপিট করে গুরুত্বর আহত করেছে। এর বিচার চাই আমি।

কাজলের ভাই ফরিদুল ইসলাম বলেন, ফজল গংদের সাথে জমিজমা ও পারিবারিক কলহের জের ধরে তারা আমার ভাইকে নির্যাতন করে গুরুত্বর আহত করে ফেলে রেখেছিলো। আমরা গ্রামবাসীর সহযোগীতায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। এলাকায় বিচার না পেয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছি।

এ ঘটনায় ফজল হোসেন বলেন, কাজল ঘটনার দিন আমার বাড়িতে এসে ঘুরাঘুরি করতেছিলো। তাই তাকে ধরে উত্তম মাধ্য দেওয়া হয়েছে মাত্র।

এ বিষয়ে আটঘরিয়া থানার এসআই নুরুল হুদা জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাটি তদন্ত করে ৩০ জুলাই আটঘরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি বলেন, আসামীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *