আটঘরিয়ায় সরকারি ১৫টি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাবনার আটঘরিয়ার নাদুড়িয়া গ্রামের পাকা সড়কের বিভিন্ন প্রজাতির ১৫টি কাঠের গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠছে। এসব মূল্যবান গাছের মধ্যে রয়েছে মেহগনি, কড়ই, নিম ও বকুল গাছ রয়েছে। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় লক্ষাধীক টাকা। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য বাধা প্রদান করলে উল্টো তার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন স্থানীয় প্রভাবশালী মো: গোলাম রব্বানী।

মাজপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জাবেদ আলী লিখিত অভিযোগের ছায়ালিপি হতে জানা গেছে, নাদুড়িয়া গ্রামের পাকা সড়কের চৌরাস্থা মোড়ে মূল সড়কে একই এলাকার প্রভাবশালী গোলাম রব্বানী, মো: শরিফ, ইসমাঈল গংয়েরা কোন নিয়ম নিতির তোয়াক্কা না করে ঐ সড়কের মেহগনি, কড়ই, নিম ও বকুলসহ বিভিন্ন মূল্যবান কাঠের গাছ কেটে নিয়েছে। এতে ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে তিনি বাধা প্রদান করলে উল্টো তার বিরুদ্ধে আটঘরিয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ইউপি সদস্য জাবেদ আলী করে বলেন, সরকারি নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে তারা চলতি মাসের বিভিন্ন সময়ে ঐ গাছগুলো কেটে নিয়েছে। সর্বশেষ বৃহস্পতিবার ঐ স্থান থেকে মেহগনি, কড়ইসহ বেশ কয়েকটি গাছ কেটে নেয়। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ৫০ হাজার টাকা।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দা নাজিম উদ্দিন, রানা মন্ডল, আব্দুল গাফ্ফার, রফিজ উদ্দিন, রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তারা বলছেন, বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসকে জানানোর পরও এলাকার প্রভাবশালী হওয়ায় গোলাম রব্বানী গংয়েরা দিনদুপুরে গাছগুলো কেটে নিয়ে গেছে।
এ ব্যাপারে গোলাম রব্বানীর সাথে বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

মাজপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল গফুর মিয়া বলেন, রাস্তা যে গাছগুলো কেটে নেওয়া হয়েছে, এ গাছগুলো ইউনিয়ন পরিষদ দেখভাল করে। কিন্তু কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে তারা ঐগাছগুলো কেটে নিয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *