আসামে ১২ শিশু ও ৯ নারীসহ ৩০ রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ডেস্ক: ভারতের আসাম-ত্রিপুরা সীমান্তে দেশটির পুলিশ ১২ শিশু ও ৯ নারীসহ ৩০ জন রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করেছে। গত সোমবার রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে আসাম পুলিশ। আসামের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আসাম ট্রিবিউন এখবর জানিয়েছে। আসামের করিমগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর দফতর) ইনম শৈকিয়া গতকাল মঙ্গলবার বলেছেন, চুরাইবারি চেক পয়েন্টে নিয়মিত চেকআপের সময় রোহিঙ্গাদের আটক করা হয়েছে।
ইনম বলেন, চেকপোস্টে নিয়মিত জিজ্ঞাসাবাদের সময় রোহিঙ্গাদের বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। তারা পাসপোর্ট আইন ভঙ্গ করেছে। আইন অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। অধিকতর তদন্ত চলছে।
পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃত রোহিঙ্গারা বাসযোগে আগরতলা থেকে গৌহাটি যাচ্ছিল।
ভারতে এই রোহিঙ্গাদের গ্রেফতারের খবর এমন সময়ে এল যখন দেশটির সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ ত্রিপুরা সীমান্ত দিয়ে ৩১ জন রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে পাঠানোর চেষ্টা করে। ৩১ জনের মধ্যে ছিল আটজন পুরুষ, ছয়জন নারী ও ১৭ জন শিশু। বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিবি) বাধা দিলে রোহিঙ্গা নাগরিকেরা দুই দেশের সীমান্তের শূন্যরেখায় অবস্থান নেয়। চারদিন সেখানেই ছিল তারা। বিষয়টি সমাধানে একাধিকবার পতাকা বৈঠকে করে বিএসএফ ও বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। অবশেষে গতকাল মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তাদের ৫-৬টি গাড়িতে করে ফিরিয়ে নেয় বিএসএফ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *