ইথিওপিয়ায় জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পীকে হত্যা, সহিংসতায় প্রাণহানি ৮০

বিদেশ : ইথিওপিয়ায় টানা দুইদিন ধরে জাতিগত দাঙ্গায় ৮০ জনের বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। পরিস্থিতিতে নিয়ন্ত্রণে বুধবার দেশটিতে সেনাবাহিনী নামানো হয়েছে। আলজাজিরা জানায়, আফ্রিকার দেশটির জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী হাচালু হুন্ডিসা সোমবার হত্যাকা-ের শিকার হয়। পুলিশ বলছে, এটি টার্গেট কিলিং ছিল। এই হত্যাকা-ের প্রতিবাদে পরদিন সকাল থেকে থেকেই রাজধানী আদ্দিস আবাবাসহ ওরোমিয়া অঞ্চলের অনেকগুলো শহর ও এলাকায় বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। ইথিওপিয়ার বৃহত্তম জাতিগোষ্ঠী ওরোমোর প্রভাবশালী ব্যক্তিত্ব ছিলেন হাচালু।

সরকার বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়ে অল্প বয়সেই জেল কেটেছিলেন। রাজনৈতিক অধিকার নিয়ে গান গেয়ে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন। তার বহু গান বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করে। ওরোমিয়া পুলিশ প্রধান বেদাসা মারদাসা জানান, এখন পর্যন্ত ৮১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। নিহতদের মধ্যে তিনজন পুলিশ সদস্যও রয়েছে। হাচালুকে হত্যাকা-ের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বী গোষ্ঠীকে দায়ী করা হচ্ছে।

হত্যাকারী হিসেবে সন্দেহভাজন কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আদ্দিস আবাবার গেলান কনদোমিনিয়ামস এলাকায় গুলিবিদ্ধ হন হাচালু। আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তিনি মারা যান। তার মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার সংঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালের সামনেই জড়ো হতে থাকে বিক্ষোভকারীরা। সেখানে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। পরদিন সকালে ওই বিক্ষোভ আরও তীব্র আকারে ছড়িয়ে পড়ে। ওরোমিয়া এক্টিভিস্ট জাওয়ার মোহাম্মদ বলেন, তারা শুধু হাচালুকেই হত্যা করেনি, ওরোমা জাতির বুকে গুলি চালিয়েছে।

তোমরা আমাকে হত্যা কর, আমাদের সবাইকে হত্যা কর, এরপরেও আমাদের থামাতে পারবে না। সহিংসতা নিয়ন্ত্রণে ওরোমিয়া অঞ্চলে ইন্টারনেট গতি কমিয়ে দেয়া হয়। পরবর্তীতে সহিংসতাপূর্ণ অঞ্চলে নামানো সেনাবাহিনী। দেশটির প্রেসিডেন্ট আবি আহমেদ সঙ্গীতশিলী হাচালুর প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করেন এবং সহিংসতা বন্ধে সব পক্ষের প্রতি আহ্বান জানান।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *