ইমরানের মন্তব্যে নাখোশ, দূত ডেকে পাঠাল কাবুল

আর্ন্তজাতিক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের এক মন্তব্যের জেরে দেশটি থেকে নিজেদের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠিয়েছে আফগানিস্তান।
যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তালেবানদের শান্তি আলোচনা গতিশীল করতে কাবুলের একটি অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করা উচিত বলে সোমবার সাংবাদিকদের বলেছিলেন ইমরান।
আফগানিস্তান পাক প্রধানমন্ত্রীর এ মন্তব্যকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ অ্যাখ্যা দিয়েছে বলে খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।
তালেবানরা আফগানিস্তানের বর্তমান আশরাফ গণির সরকারের সঙ্গে কথা বলতে দীর্ঘদিন ধরেই আপত্তি জানিয়ে আসছে। পশ্চিমা মদদপুষ্ট এ সরকারকে ‘অবৈধ’ও বলছে তারা। এ প্রেক্ষিতেই ইমরান ‘অন্তর্বর্তীকালীন সরকার’ বিষয়ক এ মন্তব্যটি করেছেন বলে জানিয়েছে এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।
আফগান সরকারের আপত্তির কারণেই তালেবান প্রতিনিধিদের সঙ্গে একটি নির্ধারিত বৈঠকও বাতিল করেছেন বলে সোমবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।
ইমরানের এ ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ মন্তব্যের কারণে তাৎক্ষণিকভাবে কাবুলে নিযুক্ত পাকিস্তানের উপ রাষ্ট্রদূতকে তাৎক্ষণিকভাবে ডেকে পাঠানো হয় বলে মঙ্গলবার টুইটারে জানান আফগান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সিবগাতুল্লাহ আহমদি।
“আফগানিস্তানের সরকার ইমরানের মন্তব্যকে পাকিস্তানের হস্তক্ষেপের নিদর্শন এবং আফগানিস্তানের সার্বভৌমত্ব ও জনগণের আকাক্সক্ষার প্রতি অশ্রদ্ধা হিসেবেই দেখছে,” বলেছেন তিনি।
তালেবানদের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের শান্তি আলোচনার নেতৃত্বে থাকা জালমে খলিলজাদও কাবুলের সুরে কণ্ঠ মিলিয়েছেন।
পাকিস্তান শান্তি প্রক্রিয়ায় ‘গঠনমূলক অবদান’ রাখলেও ইমরানের মন্তব্যে তার প্রতিফলন দেখা যায়নি, টুইটারে বলেছেন এ বিশেষ মার্কিন দূত।
“আফগানিস্তানের ভবিষ্যৎ আফগানদের জন্যই, কেবল আফগানরাই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ভূমিকা হচ্ছে আফগানদের একত্র হতে উৎসাহিত করা, যেন তারা ওই সিদ্ধান্ত নিতে পারে,” বলেছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *