ইসরায়েল-যুক্তরাষ্ট্রের কালো অধ্যায় আসছে : সোলেইমানির মেয়ে

বিদেশ : গত শুক্রবার ইরাকের রাজধানী বাগদাদে মার্কিন ড্রোন হামলায় ইরানের বিপ্লবী গার্ডের অভিজাত কুদস বাহিনীর প্রধান কমান্ডার কাসেম সোলেইমানিকে হত্যা করা হয়। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশেই এই হত্যাকা- চালানো হয়েছে।

ইরানি জেনারেলকে হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইরানে প্রতিশোধের আগুন জ্বলছে। দেশটির এই ক্ষমতাধর কমান্ডারের মৃত্যুর কঠোর প্রতিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইরান। এদিকে, তেহরানে জেনারেল সোলেইমানির জানাজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সে সময় বক্তব্য দিয়েছেন সোলেইমানির মেয়ে জয়নব সুলেইমানি। তিনি বলেন, তার বাবার এই হত্যাকা- যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েলের জন্য কালো অধ্যায়ের সূচনা হবে।

তিনি বলেন, উন্মাদ ট্রাম্প, আমার বাবার মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গেই সব কিছু শেষ হয়ে গেছে এমনটা ভাববেন না। অপরদিকে ইরানের এক এমপি বলেছেন, আমরা হোয়াইট হাউসেও হামলা চালাতে পারি। আমরা যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে তাদের যোগ্য জবাব দিতে পারি। আমাদের সেই ক্ষমতা আছে এবং আল্লাহ চাইলে আমরা সময় মতো এর জবাব দেব। তিনি আরও বলেন, এটা যুদ্ধের ঘোষণা। যদি আপনি দ্বিধান্বিত হন তবে আপনি হেরে যাবেন।

আবুল ফজল আবুতোরাবি নামের ওই এমপি বলেন, যখন কেউ যুদ্ধের ঘোষণা দেবে তখন কি আপনি বুলেটের জবাব ফুল দিয়ে দেবেন? তারা আপনার মাথায় গুলি করবে। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ইরান যদি আক্রমণ করে তবে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ ৫২ স্থানে হামলা চালানো হবে।

অপরদিকে, জেনারেল সোলেইমাইনি হত্যার ঘটনায় প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি সতর্ক করে বলেছেন, এই জঘন্য অপরাধের বদলা নেবে তেহরান।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *