ঈশ্বরদীতে বিএনপির বর্ধিত সভায় সিরাজকে মনোনয়ন দেওয়ার দাবি

সেলিম আহমেদ, ঈশ্বরদী : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ঈশ্বরদী উপজেলা ও পৌর কমিটি আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে বর্ধিত সভার আয়োজন করেন।

পাকশী ইউনিয়নের আমতলা হাসেম মিলনায়তনে এ বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। বিএনপির বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনে বিএনপির মনোনয়ন প্রার্থী, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক সংসদ সদস্য মোঃ সিরাজুল ইসলাম সরদার।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সামসুদ্দিন আহমেদ মালিথার সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য দেন পৌর বিএনপির সভাপতি আকবর আলী বিশ্বাস, সলিমপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আতিয়ার রহমান, মুলাডুলি ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, দাশুড়িয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম কেনেডি, পাকশী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জাকিউল ইসলাম তপন সরদার, সাহাপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নেফাউর রহমান রাজু, উপজেলা বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক হুমায়ুন কবির দুলাল, রুহুল আমিন বাবলু, পৌর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক এস এম ফজলুর রহমান, যুগ্ন সম্পাদক আতাউর রহমান পাতা, শ্রমিক দলের কেন্দ্রিয় নেতা আহসান হাবিব, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি নুরুল ইসলাম নুরু, সাঁড়া ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম আক্কেল, বিএনপি নেতা নুন্নু সরদার ও আরজ আলী, উপজেলা তাঁতী দলের সভাপতি খাইরুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক আরিফুর রহমান, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আজিজুর রহমান শাহিন, পৌর স্বেচ্ছাসেবক দলের আহ্বায়ক খন্দকার তৌফিক আলম সোহেল, যুগ্ন আহ্বায়ক মামুনুর রশিদ নান্টু, আবু সাঈদ লিটন, পৌর যুবদলের সভাপতি মোস্তফা নূরে আলম শ্যামল, সিনিয়র সহ-সভাপতি আক্তার হোসেন নিফা, সাধারন সম্পাদক জাকির হোসেন জুয়েল, পৌর ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল আওয়াল, সাধারন সম্পাদক মেহেদি হাসান, নাসির উদ্দিন নাসের, সাদ্দাম হোসেন, সাগর হোসেন রনি, তৌহিদুল ইসলামসহ বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল, ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ঈশ্বরদী পৌর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ইসলাম হোসেন জুয়েল।

প্রধান অতিথি বলেন, বর্তমান লুটেরা ও দুর্নীতিবাজ সরকার দেশে স্বৈরশাসন কায়েম করেছে। অবৈধ সরকারকে উৎখাতের জন্য দেশবাসী আজ ঐক্যবদ্ধ। সরকার পরাজয়ের ভয়ে দেশনেত্রী সাবেক সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়েছে। অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দিতে হবে।

তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ থেকে বিএনপিতে আসা হাবিবুর রহমান হাবিব বিগত ২০ বছর ধরে বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপির সাথে বেঈমানী করে ধানের শীষের বিজয়কে পরাজিত-পরাজয় নিশ্চিত করার জন্য কাজ করেছেন বিরোধী পক্ষের সাথে। হাবিব কখনো নৌকায় ভোট দিয়েছেন কখনো স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিএনপির প্রার্থীর বিপক্ষে নির্বাচন করেছেন। হাবিব যেহেতু বিএনপির ধানের শীষে ভোট দেয়নি তাই এখানে এসে বলুক আমি ২০ বছরে যা করেছি অন্যায় করেছি ক্ষমা চাই, আমি সিরাজুল ইসলাম সরদার আমার মনোনয়ন প্রত্যাহর করে নিব। এমপি হওয়া আমার আমার এতো প্রত্যাশা নেই, আমার সৃষ্ট দলকে আমরা সংগঠিত করে রাখতে চাই। আমরা অতিতে কে কি করেছি বড় কথা নয়, আজকে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময়। আজকে অবরুদ্ধ গণতন্ত্রকে পুণঃউদ্ধার করার জন্য অতিতের শিক্ষা নিয়ে আজকে আবারও আমাদের সেই লড়াইয়ে অবতীর্ণ হতে হবে। গণতন্ত্র পুণঃউদ্ধারে নির্বাচনী লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করে স্বচ্ছতা প্রমানের দায়িত্ব সিইসি।

দলীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়। সভায় বক্তারা সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলামকে ধানের শীষের মনোনয়ন দেওয়ার জন্য দলীয় হাই কমান্ড ও মনোনয়ন বোর্ডের নিকট জোর দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, সিরাজুল ইসলামকে মনোনয়ন না দিলে বিএনপি নেতারা মেনে নিবেনা এবং হাবিবুর রহমানকে মনোনয়ন দিলে পরাজয় নিশ্চিত হবে বলে আশংকা করেন। সভায় বেগম খালেদা জিয়া ও জাকারিয়া পিন্টুর মুক্তি দাবি করা হয় এবং তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *