ঈশ্বরদীতে মাতৃভাষা দিবসের আলোচনা ও পুরষ্কার বিতরণ

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি: আন্তজার্তিক মাতৃভাষা ও অমর একুশ উদযাপন উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত চিত্রাংকন, হাতের সুন্দর লেখা, রচনা প্রতিযোগিতা, আলোচনা ও পুরষ্কার বিতরণ আজ বৃহস্প্রতিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত আলোচনা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক ভূমিমন্ত্রী, পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা, ভাষা সৈনিক আলহাজ¦ শামসুর রহমান ডিলু এমপি।
ঈশ^রদীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহাম্মদ হোসেন ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী, ঈশ^রদী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার এফএ আসমা খান, ঈশ^রদী ইপিজেডের জিএম নাহিদ মুন্সি ও উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার এনামুল কবির। অনুষ্ঠানে সঞ্চালন করেন উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম আকতার।
প্রধান অতিথি বলেন, রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারি বাঙ্গালির রক্তে রঞ্জিত হয়েছিল রাজপথ। ওই রক্তের দামে এসেছিল বাংলা ভাষার স্বীকৃতি আর তার সিঁড়ি বেয়ে অর্জিত হয়েছিল স্বাধিনতা। বাঙ্গালির সেই আত্মত্যাগের দিন এখন কেবল আর বাংলার নয়, প্রতিটি মানুষের মায়ের ভাষার অধিকার আদায়ের দিন। রাষ্ট্রিয় সীমানা ছাড়িয়ে ২১ শে ফেব্রুয়ারি এখন আন্তজার্তিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ১৩৯টি দেশে পালিত হচ্ছে। সমকালীন যুগের হাজার বছরের সর্ব শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি সোনার মানুষ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন মানুষের ৫টি মৌলিক অধিকার বাস্তবায়িত হলে এদেশ সোনার বাংলায় পরিণত হবে। নুরুল আমিন সরকার ঘি ঢেলে মানুষের বুকে আগুন জ¦ালিয়ে দিয়েছিল। গভির ভাবে শ্রোদ্ধা জানাই যাদের আত্মহুতির বিনিময়ে আজকে আমরা মায়ের ভাষা বাংলাতে কথা বলতে পারছি। যারা নিজের বুকের তাজা রক্ত রাজপথে ঢেলে দিয়েছে ভাষার জন্য, আমরা কখনোই তাদের ভুলবোনা। পিছিয়ে পড়া দেশকে এগিয়ে নিয়েছে মানবতার মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ জননেত্রী শেখ হাসিনা। ধর্মান্ধ মৌলবাদিরা এরপরও ক্ষ্যান্ত হয় নাই, আজও ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *