ঈশ্বরদীতে যৌতুকের দাবিতে নির্যাতনের শিকার নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

এফএনএস: পাবনার ঈশ্বরদীতে গাছের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রানী (২৫) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রানী ঈশ্বরদী উপজেলার লক্ষ্মীকুন্ডা ইউনিয়নের দাদাপুর গ্রামের জসিম উদ্দিন ফকিরের স্ত্রী।

বৃহস্পতিবার ভোরে এলাকাবাসী বাড়ির পাশে একটি গাছের ডালের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় রানীর লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। রানীর বাবা সলিমপুর ইউনিয়নের ভাড়ইমারী গ্রামের আকমল হোসেন বলেন, পাঁচ বছর আগে জসিমের সঙ্গে তার মেয়ের বিয়ে হয়। তাদের ৩ বছর বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে। যৌতুকের জন্য প্রায়ই রানীকে মারধর করতো জসিম।

রানীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। তিনি বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আমাকে ফোন করে জানানো হয় আমার মেয়ে গাছের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। আমার মেয়ে আত্মহত্যা করতে পারে না, তাকে হত্যা করা হয়েছে। আমি হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করব। ঈশ্বরদী থানার এসআই আবদুল হালিম জানান, রানীর লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। তার স্বামী জসিম উদ্দিন পলাতক রয়েছেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *