ঈশ্বরদীর মুলাডুলিতে গণসংযোগ ও পথসভা হাবিবের

ধানের শীষের নিশ্চিত বিজয় জেনে বিএনপির নেতা-কর্মীদের নামে গায়েবানা মামলা দায়ের করেছে আওয়ামীলীগ……হাবিবুর রহমান
সেলিম আহমেদ, ঈশ্বরদী থেকে : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির চেয়ারপার্সন সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার অন্যতম উপদেষ্টা ও ৯০’র গণঅভ্যুথানের ছাত্রঐক্যের সভাপতি ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া আসনে বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব আজ বৃহস্প্রতিবার মুলাডুলি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় নির্বাচনী গণসংযোগ ও পথসভা করেছেন। এসময় তিনি সাধারণ মানুষ ও ভোটারদের কাছে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চান।

নির্বাচনী গণসংযোগের সময় সঙ্গে ছিলেন, ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার সাবেক সাংসদ আব্দুল বারী সরদার, উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি জিয়াউল ইসলাম সন্টু সরদার, উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নেফাউর রহমান রাজু, বিএনপি নেতা জহুরুল ইসলাম খাঁন, জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুস সাত্তার শাকিল, এনামুল হক মেম্বার, মনির হোসেন মেম্বার, আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুস শুকুর খাঁন, মাহমুদুল হাসান বিপ্লব, উপজেলা যুবদলের যুগ্ন আহ্বায়ক শরিফুল হক, নাজমুল হাসান, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রফিকুল ইসলাম রকি ও ঈশ্বরদী সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নয়ন প্রমুখ।

বিএনপি নেতা হাবিব বলেন, ধানের শীষের নিশ্চিত বিজয় জেনে বিএনপির নেতা-কর্মীদের নামে গায়েবানা মামলা দায়ের করেছে আওয়ামীলীগ। এবারের নির্বাচনে ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার আসনে নৌকার ভরাডুবি তারা ভালো করে জানেন। সেজন্য বিএনপির নেতা-কর্মী যারা ধানের শীষের নির্বাচন করছে তাদের নামে মিথ্যে গায়েবানা মামলা করে হয়রানী করছে। ঈশ্বরদী শহরের পোষ্ট অফিস মোড়ে যুবলীগের অফিস ভাংচুর করা হয়নি এবং কাউকে মারধর করা হয়নি। যদি এধরনের কোন ঘটনা ১৬ই ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ঘটে থাকতো তাহলে টিভি চ্যানেল, অনলাইন, পেপার পত্রিকা ও ফেসবুকে ঢালাও ভাবে সেই সংবাদ ছাপা হতো।

তিনি আরও বলেন, জনগন সুষ্ঠ ভাবে নিজের ভোট দিতে পারলে বিএনপি ক্ষমতায় আসবে। ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার আসনটি মূলতঃ বিএনপির। দির্ঘ দিন এ আসনটি আমাদের নিয়ন্ত্রণে ছিলনা। দির্ঘ সময় ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার মানুষ নির্যাতনের মধ্যে বসবাস করতে ছিল। এবার জনগণ সৌচ্চার হয়ে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও ভোট কারচুপির জবাব দিয়ে ধানের শীষে ভোট দিবে। খুন, হত্যা, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, জমি দখল, বালু মহল দখল থেকে সাধারন মানুষ পরিত্রাণ পেতে এবং নিশ্চিন্তে বসবাস করতে এবার ধানের শীষে ভোট দিয়ে বিজয়ী করবে। ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার এই আসনে ধানের র্শীষের বিজয় নিশ্চিত। ক্ষমতাশীন দলের ক্যাডার বাহিনী আমাদের নেতা-কর্মীদের হুমকী-ধামকী দিচ্ছে, নির্বাচনী প্রচারণায় বাঁধা সৃষ্টি করছে। শহরে ধানের শীষের পোষ্টার লাগাতে দিচ্ছেনা, লাগালে তা ছিড়ে সেখানে নৌকার পোষ্টার লাগানো হচ্ছে। ধানের শীষের নির্বাচনী প্রচারণায় যতই বাঁধা দিবে ভোটের সংখ্যা ততই বেড়ে যাবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *