উত্তর কোরয়িার ‘অত্যাধুনকি নতুন অস্ত্ররে পরীক্ষা’

র্আন্তজাতকি: র্সবাধুনকি প্রযুক্তরি নতুন একটি যুদ্ধাস্ত্ররে সফল পরীক্ষা চালানোর কথা জানয়িছেে উত্তর কোরয়িা। দশেটরি র্শীষ নতো কমি জং উন ওই পরীক্ষা র্কাযক্রম পরর্দিশনও করছেনে, উত্তররে রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমরে বরাত দয়িে এমনটাই জানয়িছেে ববিসি।ি
অস্ত্রটরি খুঁটনিাটি না জানালওে কসেএিনএ বলছ, এটি অনকেদনি আগইে মোতায়নে করা হয়ছে।

দক্ষণি কোরয়িা নতুন এ অত্যাধুনকি অস্ত্ররে বষিয়টি খতয়িে দখোর কথা জানয়িছে। এ বষিয়ে তাৎক্ষণকিভাবে যুক্তরাষ্ট্র বা অন্য কোনো পশ্চমিা দশেরে মন্তব্য জানা যায়ন। চলতি বছররে শুরুর দকিইে উত্তর কোরয়িা তাদরে পারমাণবকি অস্ত্ররে পরীক্ষা ও ব্যালস্টিকি ক্ষপেণাস্ত্র নক্ষিপে র্কমসূচি স্থগতি করছেলি।

ফব্রেুয়ারতিে দক্ষণি কোরয়িার পয়িংচ্যাংয়ে শীতকালীন অলম্পিকি থকেইে দুই কোরয়িার সর্ম্পকে উষ্ণতা ফরিতে শুরু কর।ে যার ধারাবাহকিতায় জুনে সঙ্গিাপুরে এক ঐতহিাসকি বঠৈকে ট্রাম্প ও কমি কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবকি অস্ত্রমুক্ত করারও ঘোষণা দনে।
সাম্প্রতকি মাসগুলোতে ওয়াশংিটন ও পয়িংইয়ংয়রে মধ্যে আলোচনায় স্থবরিতা লক্ষ্য করা যাচ্ছ।ে ট্রাম্প ও কমিরে মধ্যে দ্বতিীয় আরকেটি র্শীষ বঠৈক আয়োজনরে বষিয়ে চলতি সপ্তাহে দুই দশেরে মধ্যে একটি বঠৈকরে পরকিল্পনা থাকলওে সটেি হয়নি বলে জানয়িছেে ববিসি।

সঙ্গিাপুররে বঠৈকরে পর উত্তর কোরয়িা তাদরে একটি পারমাণবকি পরীক্ষা কন্দ্রে ও রকটে উৎক্ষপেণ কন্দ্রে ধ্বংস করে দয়িছে।ে যুক্তরাষ্ট্র তাদরে ওপর থকেে র্অথনতৈকি নষিধোজ্ঞা তুলে নলিে এ ধরনরে আরও কন্দ্রে ভঙেে ফলোরও ইঙ্গতি দয়িছেে তারা।
জুনরে ওই ঐতহিাসকি বঠৈকরে পর উত্তর কোরয়িা ও তাদরে নতোকে নয়িে র্মাকনি র্কমর্কতাদরে প্রশংসা শোনা গলেওে ওয়াশংিটন আগরে নষিধোজ্ঞাগুলো বহালই রখেছে।

পয়িংইয়ং গোপনে অন্তত ২০টি ক্ষপেণাস্ত্র ঘাঁটরি কাজ চালাচ্ছে বলওে চলতি মাসে ওয়াশংটন ডসিভিত্তিকি একটি থঙ্কি ট্যাঙ্ক অভযিোগ করছে।ে ওই গোপন ঘাঁটগিুলোর মধ্যে ১৩টকিে চহ্নিতি করা হয়ছেে বলওে দাবি তাদরে। সউিল ও ওয়াশংটন জানয়িছে, তারা ওই ঘাঁটগিুলোর বষিয়ে আগে থকেইে জ্ঞাত। এগুলোকে ট্রাম্প-কমি চুক্তরি বরখলোপ হসিবেে দখো হচ্ছে না বলওে ইঙ্গতি তাদরে।

“অ্যাকাডমেি অব ন্যাশনাল ডফিন্সে সায়ন্সেে উচ্চ-প্রযুক্তরি একটি নতুন যুদ্ধাস্ত্ররে পরীক্ষা র্কাযক্রম পরর্দিশন করছেনে কমি জং উন। উচ্চ-প্রযুক্তসিম্পন্ন ওই নতুন অস্ত্রটরি পরীক্ষাটি সফল হয়ছে,” জানয়িছেে কোরয়িান সন্ট্রোল নউিজ এজন্সেি (কসেএিনএ)।

নতুন এ অস্ত্র উত্তর কোরয়িার প্রতরিক্ষা ব্যবস্থাপনাকে ‘র্দুভদ্যে’ করে তুলবে ও সনোবাহনিীর যুদ্ধ ক্ষমতা অনকেগুণ বাড়য়িে দবে, পরর্দিশন শষেে কমি এমনটা বলছেনে বলওে জানয়িছেে এ রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম।

এক বছর আগে ২০১৭ সালরে নভম্বেরে হোয়াসং-১৫ আন্তঃমহাদশেীয় ক্ষপেণাস্ত্ররে পরীক্ষা সময় এর উৎক্ষপেণ কন্দ্রেে ছলিনে কমি। এরপর এটাই তার কোনো অস্ত্র পরর্দিশনরে আনুষ্ঠানকি খবর, বলছে দক্ষণি কোরয়িার পুনরকেত্রীকরণ বষিয়ক মন্ত্রণালয়।

নতুন এ ‘অত্যাধুনকি অস্ত্র’ ক্ষপেণাস্ত্র বা বড় কোনো মারণাস্ত্র না হয়ে সাধারণ কোনো অস্ত্র হতে পারে বলওে ধারণা তাদরে। ক্ষপেণাস্ত্ররে বলোয় উত্তর কোরয়িা সাধারণত ‘কৌশলগত অস্ত্র’ পরভিাষাটি ব্যবহার কর,ে এবার কসেএিনএ-র ভাষ্যে তা ছলি না, বলছে দক্ষণিরে এ পুনরকেত্রীকরণ মন্ত্রণালয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *