এক মাসে পর ডিএসইতে ২ হাজার কোটির নিচে লেনদেন

অর্থনীতি : সপ্তাহের প্রথম লেনদেনে রোববার সূচক এবং লেনদেন কমেছে বাংলাদেশের দুই পুঁজিবাজারে। রোববার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ১৭ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ বা ৩৮০ কোটি ৭৫ লাখ টাকা কমেছে। ডিএসইতে এদিন ১ হাজার ৮৪৬ কোটি ৮৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়, যা আগের কর্মদিবসে ছিল ২ হাজার ২২৭ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। এক মাস পরে ২ হাজার কোটি টাকার নিচে নামল ডিএসইর লেনদেন। এর আগে লেনদেন ২ হাজার কোটি টাকার নিচে নেমেছিল গত ২৯ জুলাই। সেদিন লেনদেন ছিল ১ হাজার ৫২১ কোটি ৩১ লাখ। বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমবিএ) সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ এ হাফিজ বলেন, “সব সময় আমরা দেখতে পাই মাসের শেষে পুঁজিবাজারে একটি মূল্য সংশোধন হয়। যেহেতু অগাস্ট মাস শেষ হয়ে যাচ্ছে তাই পুঁজিবাজারে একটা মূল্য সংশোধন হচ্ছে। পরে আবার ঠিক হয়ে যাবে।” রোববার লেনদেনের শুরুতে ডিএসই সূচক আগের দিন থেকে ২৫ পয়েন্ট বেড়ে যায়। এরপরই সূচক কমে যেতে থাকে। রোববার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিন থেকে ২৭ দশমিক ৭১ পয়েন্ট বা দশমিক ৪০ শতাংশ কমে ৬ হাজার ৮২৩ দশমিক ৬০ পয়েন্টে অবস্থান করছে। এদিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজারে ৫৭ শতাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে। এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৩৭৫টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৩১টির এবং কমেছে ২১৫টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির দর। ঢাকার অন্য দুই সূচকের মধ্যে ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ২ দশমিক ৯৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৪৮৪ দশমিক ২৬ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৯ দশমিক ৯৫ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ২ হাজার ৪৪৩ দশমিক ৪৮ পয়েন্টে। লেনদেনের শীর্ষ থাকা ১০টি কোম্পানি হচ্ছে- বেক্সিমকো, লাফার্জ হোলসিম, সাইফ পাওয়ার, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, শাহাজীবাজার পাওয়ার, আমান ফীড, লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, আইএফআইসি, ইসলামিক ফাইন্যান্স ও ফু-ওয়াং ফুড। দাম বাড়ার তালিকায় শীর্ষ রয়েছে- আজিজ পাইপস, রহিমা ফুডস, দেশবন্ধু পলিমার, নরদার্ন জুট, ক্রিস্টাল ইন্স্যুরেন্স, বিডি অটোকারস, মোজাফ্ফর হোসেন স্পিনিং, শাহাজীবাজার পাওয়ার, আমান ফীড ও পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্স। সবচেয়ে বেশি দর হারানো ১০টি কোম্পানি- এসবিএসি ব্যাংক, মেঘনা কন্ডেন্সড মিল্ক, সিএনএ টেক্স, ইমাম বাটন, ইসলামিক ফাইন্যান্স, মিথুন নিটিং, শ্যামপুর সুগার, এক্সপ্রেস ইন্স্যুরেন্স, মেঘনা পেট ও আইপিডিসি। এদিন চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের প্রধান সূচক সিএএসপিআই ৮৬ দশমিক ৩৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৯ হাজার ৮৪৪ দশমিক ২৯ পয়েন্টে। এই বাজারে লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৩ দশমিক ১৮ শতাংশ বা ২ কোটি ৭০ লাখ টাকা কমেছে। মোট ৮২ কোটি ৪৩ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিন ছিল ৮৫ কোটি ১৪ লাখ টাকা। সিএসইতে ৩১৭টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড কেনাবেচা হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ১৮৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির দর।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *