এদেশে কোন স্বাধীনতা বিরোধী থাকবে না— শিক্ষামন্ত্রী

নাটোর প্রতিনিধি : শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপি বলেছেন, “জনসম্পৃক্ততা যাদের নেই ,যারা এদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাষ করে না,যারা যুদ্ধাপরাধীদের দোসর,যারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করতে বিচারের দিন হরতাল পালন ডেকেছেন,যারা পার্বত্য শান্তি চুক্তির দিনেও হরতাল ডেকেছে ,শান্তি চুক্তি ভুন্ডল করতে চেয়েছে। সেই খুনি অপশক্তিকে আর কোনভাবেই কোন জায়গা ছেড়ে দেওয়ার সুযোগ নেই। এদেশে আর যাই হোক কোন স্বাধীনতা বিরোধী থাকবে না।

তিনি আরো বলেন, ৭১ এর পরাজিত শক্তিরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে। তারা এদেশকে পাকিস্তানে ফেরত নিয়ে যেতে চেয়েছিল। সংবিধানকে ধ্বংস করে জিয়া অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে। ঐসময় নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করা হয়। ১৯টি ক্যু’র পরে হত্যা করা হয় অসংখ্য মুক্তিযোদ্ধাকে। নিষিদ্ধ করা হয় সাতই মার্চের ভাষণ, নিষিদ্ধ করা হয় বঙ্গবন্ধু, নিষিদ্ধ করা হয় রণাঙ্গণের ‘জয় বাংলা’ শ্লোগান। ২১ বছর ধরে সামরিক ও স্বৈরাচারের যাতাকলে পিষ্ট এদেশের মানুষকে পথের দিশা দিয়েছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। ৮১ থেকে ৯৬ পর্যন্ত আন্দোলন ও সংগ্রামের মাধ্যমে তিনি সফল হন। ৯৬ থেকে ২০০১ সালে শেখ হাসিনা’র নেতৃত্বে দেশ সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে যায়। ” তিনি আজ মঙ্গলবার দুপুরে শহরের আলাইপুরস্থ অনিমা চৌধুরী অডিটোরিয়ামে মহান বিজয় দিবস উদ্যাপনের অংশ হিসেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস, শফিকুল ইসলাম শিমুল, নাটোর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান খান, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থপতি ও প্রো ভাইস চ্যান্সেলর ড. নিজাম উদ্দিন আহমেদ সহ কর্মকর্তাবৃন্দ। শিক্ষা মন্ত্রী পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ শেষে নাটোর নবাব সিরাজ-উদ-দৌলা সরকারি কলেজ, মাহারাজা জে এন স্কুল এন্ড কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!