করোনার সংক্রমণ বাড়ছে ধূমপায়ী তরুণদের মধ্যে

স্বাস্থ্য: বাংলাদেশের করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে ধূমপায়ী তরুণদের হার বাড়ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রাণঘাতী এ ভাইরাসটি প্রথমেই শ্বাসতন্ত্রে আঘাত হানে। যে কারণে ধূমপান ও অন্যান্য ধোঁয়াবিহীন তামাক সেবনে অভ্যস্ত তরুণদের দুর্বল ফুসফুসে সংক্রমিত হচ্ছে করোনা।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও রোগ গবেষণা কেন্দ্র (আইইডিসিআর) এর ওয়েবসাইটে দেয়া তথ্য অনুযায়ী, নারীদের চেয়ে দেশে পুরুষরাই করোনায় বেশি হারে আক্রান্ত হচ্ছেন। আর এই পুরুষদের মধ্যে তরুণদের একটি বিশাল অংশ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন, যাদের অধিকাংশই ধূমপায়ী বা তামাকসেবী।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও রোগ গবেষণা কেন্দ্রের (আইইডিসিআর) ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ইনফোগ্রাফের তথ্য বিশ্লেষণ করে বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, তামাক সেবনকারীদের ফুসফুস অন্য ব্যক্তিদের তুলনায় দুর্বল হওয়ায় তাদের মধ্যে আক্রান্তের হার বাড়ছে। সাইটে দেখা যায়, দেশে করোনায় আক্রান্তদের ২৬ শতাংশই ২১-৩০ বছর বয়সী তরুণ।

এ বিষয়ে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের এপিডেমিওলজি অ্যান্ড রিসার্চ বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল রেজা চৌধুরী একটি গণমাধ্যমে বলেন, ‘লকডাউনের ফলে বয়স্ক ব্যক্তিরা হয়তো বাইরে বেশি যাচ্ছে না কিন্তু তরুণরা বিভিন্ন হাটবাজার এবং কাজকর্মে বের হচ্ছে।’ এটিকে তাদের সংক্রমিত হওয়ার মূল কারণ হিসেবে উল্লেখ করেন তিনি।

করোনা ভাইরাস প্রথমেই শ্বাসতন্ত্রে আঘাত হানে। আর ধূমপান ও অন্যান্য ধোঁয়াবিহীন তামাক সেবনকারী তরুণদের ফুসফুস দুর্বল থাকার কারণে করোনা ভাইরাসে রুণরাই বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন বলেও জানান এ বিশেষজ্ঞ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *