করোনায় আক্রান্তে মুসলিম দেশগুলোর শীর্ষে তুরস্ক

বিদেশ : তুরস্কে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে রোববার গত ২৪ ঘণ্টায় আরও প্রায় ৪ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮৬ হাজার ৩০৬ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে ইরানকে হটিয়ে করোনা আক্রান্তের তালিকায় মুসলিম দেশগুলোর শীর্ষে উঠে এসেছে তুরস্ক। তবে মৃতের সংখ্যায় এখনও মুসলিম বিশ্বের শীর্ষে রয়েছে ইরান।

সেখানে মোট আক্রান্ত হয়েছে ৮২ হাজার ২১১ জন এবং মারা গেছে সবমিলিয়ে ৫ হাজার ১১৮ জন। তুরস্কে গত কয়েক দিন ধরেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে। রোববার গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে তিন হাজার ৯৭৭ জন। এর আগে শনিবার একদিনে দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল তিন হাজার ৭৮৩ জন। তুরস্কে রোববার করোনায় প্রাণ হারিয়েছে আরও ১২৭ জন। ফলে সেখানে মোট মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ১৭ জনে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

দেশটিতে মোট সুস্থ হয়েছে ১১ হাজার ৯৭৬ জন। এ সম্পর্কে তুরস্কের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফাহরেত্তিন কোকা বলেন, করোনা পরীক্ষার হার বাড়ার ফলে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে। শনিবার পর্যন্ত প্রায় ৬ লাখ মানুষকে পরীক্ষা করা হয়েছে। বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিসংখ্যান ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের টালি অনুযায়ী- তুরস্ক করোনা আক্রান্ত শীর্ষ দশ দেশের তালিকায় সপ্তম স্থানে উঠে এসেছে। তুরস্কের পরই যথাক্রমে অবস্থান করছে চীন ও মধ্যপ্রাচ্যের আরেক দেশ ইরান।

চীনে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ৭৪৭ জন এবং মৃত্যু ৪ হাজার ৬৩২। অন্যদিকে ইরানে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ২১১ জন। তুরস্কে গত ১০ মার্চ প্রথম একজন করোনা রোগী শনাক্ত হন। এর প্রায় এক মাস পর অর্থাৎ ৮ এপ্রিল আক্রান্ত হন চার হাজার ১১৭ জন। ১১ এপ্রিল শনাক্ত হয় ৫ হাজার ১৩৮ জন। এরপর আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমলেও দেশটিতে বর্তমানে প্রায় প্রতিদিনই অন্তত চার হাজার মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছে।

এদিকে করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে দেশের ৩১টি প্রদেশের যাতায়াতের নিষোধাজ্ঞা আরও ১৫ দিন বাড়িয়েছে তুরস্ক। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশটির সমস্ত স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও মসজিদ। এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে অনেক দেশের সাথে বিমান চলাচলও বন্ধ করেছে আঙ্কারা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *