করোনা টিকা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে সফল হতে পারেনি বিএনপি-পাবনায় তথ্যমন্ত্রী

পাবনা প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক  তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বিএনপির উদ্দেশ্যে বলেছেন, করোনার টিকা নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়ায়ে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়েছে। বিএনপির বুদ্ধিজীবী ডা. জাফর উল্লাহ, বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীসহ অনেক নেতা প্রকাশ্যে ও অপ্রকাশ্যে টিকা নিয়েছেন। করোনা টিকা প্রাপ্তিতে উপমহাদেশে বাংলাদেশ প্রথম আর বিশ্বের মধ্যে ২৫ তম দেশ।
ড. হাসান মাহমুদ উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা টানা তিন মেয়াদের সময়ে দেশের মানুষের কল্যানে যে অভূতপূর্ব উন্নয়ন তথা উন্নয়নের মডেল হিসেবে বিশ্বের দরবারে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জল করেছেন। এটা বজায় রাখতে নেতাকর্মীদের সংযত আচরন করতে হবে। আওয়ামীলীগের কর্মকান্ডে প্রতিপক্ষের মধ্যে ঈর্ষা ও হিংসা দেখা দিয়েছে। অনেকেই নৌকায় উঠতে চান। কিন্তু সবাইকে নৌকায় তুলে ডুবানোর দরকার নেই দাবী করে তথ্যমন্ত্রী হাসান মাহমুদ বলেন, ত্যাগী, পরিশ্রমি ও দুর্দিনের নেতাকর্মীদের প্রকৃতভাবে মূল্যায়নের জন্য দলের নেতাদের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান।
বুধবার দুপুরে পাবনার ফরিদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে স্থানীয় ওয়াজ উদ্দিন খান স্মৃতি  অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি খলিলুর রহমান সরকারের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রেজাউল রহিম লাল।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্পাদক আলী আশরাফুল কবিরের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা, সৈয়দ আব্দুল আওয়াল শামীম, সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ ফিরোজ কবির এমপি। প্রধান বক্তা ছিলেন পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি।
এ সময় পাবনা সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোশাররফ হোসেন,  সম্পাদক সোহেল হাসান শাহীন, ফরিদপুর পৌরসভার মেয়র খ ম কামরুজ্জামান মাজেদ, ভাঙ্গুড়া পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ বাকি বিল্লাহ, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা অ্যাডভোকেট বেলায়েত আলী বিল্লু, মনির হোসেন মান্না, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি খন্দকার আহমেদ শরীফ ডাবলুসহ জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *