করোনা ভাইরাস নিয়ে আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি অস্ট্রেলিয়ার

বিদেশ : করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবিলায় চীনের স্বচ্ছতা নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলেছে অস্ট্রেলিয়া। ভাইরাসটির উৎস ও ছড়িয়ে পড়ার বিষয়ে আন্তর্জাতিক তদন্ত দাবি করেছে দেশটি। রোববার বার্তাসংস্থা রয়টার্স এ তথ্য জানায়।

গত বছরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে অবস্থিত বন্যপ্রাণীদের একটি বাজার থেকে করোনা ভাইরাসটি ছড়িয়েছে বলে ধারণা করা হয়। রয়টার্সের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এতে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২৩ লাখ মানুষ এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৬০ হাজার জন। অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারিসে পেইনে বলেন, চীনের স্বচ্ছতা নিয়ে তার উদ্বেগ ‘খুব উচ্চ পর্যায়ে’।

তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাস ঘিরে যে ঘটনাগুলো ঘটেছে, তা স্বাধীনভাবে পর্যালোচনা করা দরকার এবং আমি মনে এটা করা গুরুত্বপূর্ণ। এটা হোক তা অস্ট্রেলিয়া সম্পূর্ণ দৃঢ়ভাবে চাইবে।’ ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। রোববার দেশটিতে কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫৩ জন। এ পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৫৮৬।

এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৭১ জনের। গত সাতদিন ধরে রোগী শনাক্তের হার বাড়ার পরিমাণ ১ শতাংশের কম। এর আগে অস্ট্রেলিয়া অভিযোগ করেছিল, দেশটির অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলাচ্ছে চীন।

এ ঘটনায় দেশ দু’টির সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনকে নিয়ে সমালোচনা করার পর আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি এলো অস্ট্রেলিয়ার কাছ থেকে। ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তারাও চীনের স্বচ্ছতার অভাব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। শনিবার ট্রাম্প বলেছেন, চীন যদি ‘জেনেশুনে’ এ মহামারির পেছনে দায়ী থাকে, তাহলে তাদের এর ফল ভোগ করতে হবে।

তবে চীন বরাবরই এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। তাদের দাবি ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই স্বচ্ছ ছিল তারা এবং বিশ্বকে এ বিষয়ে সতর্ক করেছিল।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *