কাবুলে মার্কিন ড্রোন হামলা, একই পরিবারের ৬ শিশুসহ ৯ জন নিহত

বিদেশ : কাবুলে মার্কিন ড্রোন হামলায় ছয় শিশুসহ একই পরিবারের নয় জন নিহত হয়েছে। নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট খোরাসান প্রভিন্সের (আইএস-কে) সন্দেহভাজন বোমা হামলাকারীকে লক্ষ্য করে আফাগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে রোববার ড্রোন হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। আফগানিস্তানে কাজ করা যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম সিএনএনের এক সাংবাদিককে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন নিহত ব্যক্তিদের এক স্বজন। এ হামলার পর রোববার মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়, কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে আইএস-কে। এ কারণে আত্মরক্ষার্থে ওই ড্রোন হামলা চালানো হয়। সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন এই ড্রোন হামলায় যারা নিহত হয়েছে, তাদের মধ্যে দুই বছরের শিশুও রয়েছে। এই হামলায় নিহত এক ব্যক্তির ভাই বলেন, তারা খুবই সাধারণ পরিবারের সদস্য। তিনি বলেন, ‘আমরা কেউ আইএসের সদস্য নই। যেখানে হামলা চালানো হয়েছে, সেটা একটি বাড়ি। সেখানে আমার ভাই তার পরিবার নিয়ে থাকত।’ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মার্কিন ড্রোন হামলায় শিশুসহ কয়েকজন নিহত হয়েছেন। হামলার পর ওই বাড়ির পার্শ্ববর্তী বাড়িতে থাকা এক ব্যক্তি বলেন, ‘হামলায় বাড়িতে আগুন ধরে গিয়েছিল। প্রতিবেশীরা সবাই মিলে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেছেন। আমি সেখানে পাঁচ-ছয়জনের মরদেহ দেখেছি। তাদের শরীর ছিন্ন-ভিন্ন হয়ে গেছিল’। তিনি জানান, এ ছাড়া আরও দুই আহত ব্যক্তিকে তিনি দেখেছেন। এই হামলার পর রোববার বিকেলে বেসামরিক মানুষ হতাহতের কথা স্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!