কোভিড-১৯: মৃত্যুতে ইতালিকে ছাড়াল ব্রাজিল

বিদেশ : মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া নতুন করোনাভাইরাসে ব্রাজিলে মৃত্যু ৩৪ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এ সংখ্যা ইউরোপে ভাইরাসের দাপটে অন্যতম ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ইতালির চেয়েও বেশি। বুধবার থেকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণঘাতী ভাইরাস ব্রাজিলে অন্তত এক হাজার ৪৭৩ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে বলে দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

দক্ষিণ আমেরিকার এ দেশটিতে নতুন করোনাভাইরাসে আক্রান্তের মোট সংখ্যাও ৬ লাখ ১৪ হাজার ছাড়িয়েছে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত ব্রাজিলে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ৩৪ হাজার ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের হালনাগাদ তথ্যে দেখা যাচ্ছে। একই সময় পর্যন্ত ইতালিতে মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে ৩৩ হাজার ৬৮৯ জনের। ব্রাজিলে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা তিনদিন কোভিড-১৯ এ মৃত্যু আগের দিনের রেকর্ড ভেঙেছে।

দেশটিতে সাধারণত স্থানীয় সময় সন্ধ্যার দিকে নতুন করোনাভাইরাসে শনাক্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা জানানো হলেও গত কয়েক সপ্তাহ ধরে এই সময়সূচি বারবার পরিবর্তিত হয়েছে। কোভিড-১৯ সংক্রান্ত তথ্য নিয়ে দেশটির সরকারের লুকোচুরির অংশ হিসেবেই এমনটা করা হতে পারে বলে অনুমান সমালোচকদের। ব্রাজিলের কট্টর ডানপন্থি প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনেরো প্রথম থেকেই সংক্রমণ রোধে বিধিনিষেধ আরোপের বিরোধিতা করে আসছিলেন।

সংক্রমণ বাড়তে থাকায় ভাইরাস মোকাবেলায় তার পদক্ষেপ ও আগ্রহ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। বৃহস্পতিবার এক ফেইসবুক লাইভে বোলসোনেরো প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে গভর্নরদের বেঁধে দেয়া নানান নিয়মকানুনের সমালোচনাও করেছেন। বিধিনিষেধের ফলে অর্থনীতির ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ভাইরাসের কারণে হওয়া মৃত্যুর কয়েকগুণ হবে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।ডিসেম্বরের শেষদিকে চীনের উহানে আবির্ভূত হওয়া নতুন করোনাভাইরাস এরইমধ্যে বিশ্বের তিন লাখ ৯১ হাজারের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে।

শনাক্ত আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৬৬ লাখ। ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্রের পর লাতিন আমেরিকার দেশগুলোতে এখন ভাইরাসটি দাপট দেখাচ্ছে। ব্রাজিল ছাড়াও ওই অঞ্চলের মেক্সিকো, পেরু ও চিলির পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষজ্ঞরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *