ক্যালিফোর্নিয়ার দাবানলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩১, নিখোঁজ ২০০

আর্ন্তজাতিক: যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় পৃথক দুটি দাবানলে মৃতের সংখ্যা ৩১ জনে দাঁড়িয়েছে এবং এখনো ২০০ জন নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

অঙ্গরাজ্যটির উত্তরাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া ক্যাম্প ফায়ার নামের দাবানলে পুড়ে মারা যাওয়া আরও ছয় জনের লাশ রোববার পাওয়া যায়, এদের নিয়ে এই দাবানলটিতে নিহতের সংখ্যা ২৯ জনে দাঁড়িয়েছে বলে খবর বিবিসির।

রোববার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে বিউট কাউন্টির শেরিফ কোরি হোনেয়া জানান, পুড়ে যাওয়া একটি বাড়িতে পাঁচ জনের লাশ পেয়েছেন কর্মকর্তারা এবং একটি গাড়িতে আরেকটি লাশ পাওয়া গেছে। ওই পর্যন্ত আরও ২০০ জন নিখোঁজ ছিলেন বলে জানিয়েছেন তিনি।
ক্যাম্প ফায়ার দাবানলটি ইতোমধ্যেই ক্যালিফোর্নিয়ার ইতিহাসে সবচেয়ে প্রাণঘাতী দাবানল গ্রিফিথ পার্ক দাবানলের সমান প্রাণঘাতী হয়ে গেছে বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনগুলোতে বলা হয়েছে।

এর দক্ষিণে উয়ুলজি নামের আরেকটি দাবানল দুজনের প্রাণ নিয়েছে। এই দাবানলটির কারণে সাগরতীরবর্তী কয়েকটি অবকাশ কেন্দ্রে হুমকির মুখে রয়েছে, এগুলোর মধ্যে মালিবু অন্যতম।

ক্যালিফোর্নিয়ার তিনটি অংশে পৃথক তিনটি দাবানল থেকে বাঁচতে প্রায় আড়াই লাখ মানুষ তাদের ঘরবাড়ি ছেড়ে নিরাপদ জায়গায় সরে গেছে। বাড়তে থাকা বাতাসের কারণে দাবানলগুলো আরও ছড়িয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এই পরিস্থিতিতে ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর জেরি ব্রাউন দাবানলের তা-বকে বড় ধরনের দুর্যোগ ঘোষণার জন্য প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। ট্রাম্প তার এই আহ্বানে সাড়া দিলে কেন্দ্র থেকে বেশি পরিমাণ জরুরি তহবিল পাওয়ার পথ উন্মুক্ত হবে।
কিন্তু একদিন আগেই ট্রাম্প এই দাবানলগুলোর জন্য ক্যালিফোর্নিয়ার দুর্বল বন ব্যবস্থাপনাকে দায়ী করে কেন্দ্র থেকে অঙ্গরাজ্যটিকে দেওয়া তহবিল হ্রাস করার হুমকি দিয়েছিলেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *