গাঁজা সেবন করা যাবে, তবে দুর্গন্ধ ছড়ানো যাবে না

বিদেশ : শিগগিরই বাড়িতে গাঁজা চাষের অনুমতি দিতে যাচ্ছে থাইল্যান্ড সরকার। একইসঙ্গে গাঁজা বিক্রির বিধিনিষেধও শিথিল করা হবে। তবে প্রকাশ্যে গাঁজা সেবন করে দুর্গন্ধ ছড়ালে জরিমানা করা হবে বলে সতর্ক করেছেন কর্মকর্তারা। গতকাল বৃহস্পতিবার গাঁজাকে মাদকের তালিকা থেকে বাদ দেবে থাইল্যান্ডের সরকার। তবে শুধুমাত্র কম ক্ষমতা সম্পন্ন গাঁজা সেবনের অনুমতি দেওয়া হবে। গাঁজাতে থাকা মানসিক প্রভাবের জন্য দায়ী মুখ্য উপাদান টেট্রাহাইড্রোকানাবিনল শূন্য দশমিক ২ শতাংশ বেশি থাকা যাবে না। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, জনসাধারণের মধ্যে ধূমপান করা উচিত নয় এবং এটি করা জনসাধারণের উপদ্রব হিসাবে বিবেচিত হবে। জনস্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব থংচাই কিরাতিহাত্তায়াকর্ন সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘গাঁজার ধোঁয়া জনস্বাস্থ্য আইনের অধীনে অপরাধ বলে বিবেচিত হবে এবং এ-সংক্রান্ত একটি ঘোষণা স্বাস্থ্যবিভাগ দেবে।’ নতুন নিয়ম অনুযায়ী, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি ওষুধের উদ্দেশ্যে খামারে বা তাদের বাগানে অসংখ্য গাঁজা গাছ জন্মাতে পারবেন। অবশ্য বিষয়টি চাষিদের কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে এবং যে কেউ বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে গাঁজা চাষ করলে সরকারি অনুমোদন নিশ্চিত করতে হবে। সরকার সারা দেশে ১০ লাখ গাঁজার চারা বিতরণ করার জন্য প্রচার চালাবে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *