গানটির জন্য ৭ হাজার রুপি পেয়েছিলাম: শেফালি

বিনোদন: ‘কাঁটা লাগা গার্ল’খ্যাত শেফালি জড়িওয়ালা। ২০০২ সালে প্রকাশিত এই গানের মডেল হয়ে রাতারাতি আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে আসেন। পাড়া-মহল্লা, অলিগলি সবখানেই তাকে নিয়ে চর্চা শুরু হয়। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এই গান নিয়ে স্মৃতিচারণ করেছেন শেফালি। তিনি জানান, যখন ‘কাঁটা লাগা’ গানটির প্রস্তাব পান তখন তিনি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের শিক্ষার্থী।

গানের পরিচালক রাধিকা রাও এবং বিনয় সাপরু কলেজের সামনে তাকে দেখে এটির প্রস্তাব দেন। শেফালি বলেন, ‘আমি তখন কলেজে পড়তাম, এ ছাড়া আমার পরিবার পড়ালেখার ব্যাপারে খুবই সচেতন ছিলেন। বাবা-মা আমাকে পড়ালেখায় মনোযোগ দিতে বলেন। কিন্তু কিছু আয়ও করতে পারব ভেবে আমি মিউজিক ভিডিওটি করতে চাইছিলাম।

গানটির জন্য ৭ হাজার রুপি পেয়েছিলাম। আর নিজেকে টিভিতে দেখার ইচ্ছাও ছিল।’ কিন্তু শুরুতে তার বাবা এতে সম্মতি দেননি। শেফালি বলেন, ‘আমার বাবা পুরোপুরি এর বিপক্ষে ছিলেন। এজন্য প্রথমে মাকে এই বিষয়টি বুঝিয়ে বলি এবং পরবর্তী সময়ে দু’জন মিলে বাবাকে রাজি করি। এরপর গানটি হিট হয় এবং আমার কাছে সবকিছু স্বপ্নের মতো মনে হয়েছিল।

এটি আমার সবকিছু পরিবর্তন করে দেয়।’ ‘কাঁটা লাগা’র পর প্রায় ৩৫টি মিউজিক ভিডিওর মডেল হয়েছেন শেফালি। পাশাপাশি ২০০৪ সালে ‘মুঝসে শাদি করোগে’ সিনেমাতে অতিথি চরিত্রে অভিনয় করেন।

পরবর্তী সময়ে ‘নাচ বালিয়ে’ রিয়েলিটি শোয়ের সিজন ফাইভে অংশ নেন। তার সঙ্গে ছিলেন সেই সময়ের প্রেমিক (বর্তমান স্বামী) পরাগ ত্যাগী। এই রিয়েলিটি শোয়ের সপ্তম আসরেও ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি করেন এই জুটি।

২০১৮ সালে অল্ট বালাজির অ্যাডাল্ট কমেডি সিরিজ ‘বেবি কাম না’র মাধ্যমে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে পা রাখেন শেফালি। জনপ্রিয় ‘বিগ বস’ রিয়েলিটি শোয়ের ১৩তম সিজনে ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি করেন তিনি। অসিম রিয়াজের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে আবারো আলোচনায় আসেন শেফালি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *