গোবরে চলে বাস

ডেস্ক রিপোর্ট : ২০২০ সাল থেকে পাকিস্তানের বন্দর নগরী করাচিতে চলবে গোবর-নির্ভর বাস৷ বিস্ময়ের কিছু নেই, গোবর ব্যবহার করে উৎপাদিত বায়োগ্যাস দিয়ে বাস চালানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে করাচি প্রশাসন৷ খবর ডয়েচে ভেলে।

আন্তর্জাতিক সংস্থা গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ডের অর্থ সহায়তায় বাস ব়্যাপিড ট্রান্সপোর্ট নেটওয়ার্ক, তথা বিআরটি প্রকল্পের আওতায় এর কাজ শুরু হয়েছে৷ প্রকল্পের আওতায় ২০০ বাস চলবে পাকিস্তানের সবচেয়ে বড় এই শহরে৷

বিআরটি প্রসঙ্গে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জলবায়ু বিষয়ক উপদেষ্টা মালিক আমিন আসলাম বলেন, গ্রিন ক্লাইমেট ফান্ডের অনুমোদনকৃত এটিই প্রথম প্রকল্প৷ এতে পরিবেশগত ও অর্থনৈতিক লাভের সুযোগ রয়েছে৷ এই খাতে কোনো ভর্তুকিও দিতে হবে না বলে জানান তিনি৷

এই প্রকল্প চালু হলে প্রতিদিন ৩ লাখ ২০ হাজার যাত্রী যাতায়াতের সুযোগ পাবে৷ এবং ৩০ বছরের মধ্যে ২৬ লাখ টন কার্বনডাই অক্সাইড নির্গমন রোধ করা যাবে বলে জানান তিনি৷

বিআরটির সীমানায় ৩০ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে৷ এই পথে ১৫ লাখ অধিবাসী রয়েছে৷ এই পথে ২৫টি নতুন বাস স্টেশন যুক্ত করা হবে৷ একই সঙ্গে সড়কের পাশে ফুটপাত উন্নয়ন, সাইকেল লেন, ও বাইক লেনের ব্যবস্থা করা হবে৷

স্থানীয়রা এই প্রকল্পের বাস্তবায়ন নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করলেও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন৷ তারা মনে করেছেন এমনটি সম্ভব পর হলে করাচির বায়ু ও শব্দ দূষণ কমবে৷

করাচির বাসিন্দা ৪৫ বছর বয়সি আফজাল আহমেদ বিরক্তি প্রকাশ করে বলেন, ‘‘এ শহরে গণ পরিবহন বলে কোনো সেবা নেই৷ একেবারেই বিধ্বস্ত এই খাত৷ চীন থেকে আমদানী করা কিছু বাস প্রাকৃতিক গ্যাসে চলেছিল বেশ কয়েকদিন৷ এরপর সেগুলো নষ্ট হওয়ার পর আর নতুন কোনো বাস যুক্ত হয়নি গত দুই দশক৷ এখানকার বাসিন্দাদের ভরসা ‌ট্যাক্সি, অটো রিকশা৷’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *