চাটমোহরে ইউএনও সরকার মোহাম্মদ রায়হানকে বিদায় ও নবাগত সৈকত ইসলামকে বরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : পাবনার চাটমোহরে বর্তমান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরকার মোহাম্মদ রায়হানকে বিদায় ও নবাগত ইউএনও মো: সৈকত ইসলামকে বরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলা প্রশাসন ও অফিসার্স ক্লাবের আয়োজনে অনুষ্ঠানের শুরুতে তাদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।
নবাগত ইউএনও মো: সৈকত ইসলামের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ইকতেখারুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হামিদ মাস্টার, পৌর মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান ইছাহক আলী মানিক, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজা পারভীন, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আব্দুল হালিম, ডিবিগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান নবীর উদ্দির মোল্লা, চাটমোহর প্রেসক্লাব সভাপতি রকিবুর রহমান টুকুন, দৈনিক আমাদের বড়াল সম্পাদক হেলালুর রহমান জুয়েল, চাটমোহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি বেলাল হোসেন স্বপন প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে চাটমোহর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ মাস্টার বলেন, বিদায়ী ইউএনও সরকার মোহাম্মদ রায়হান ছিলেন দক্ষ প্রশাসনিক কর্মকর্তা। তিনি তার কাজের মাধ্যমে সবার মন জয় করার চেষ্টা করেছেন। চাটমোহরের মানুষ ভাল মনের, শান্তিপ্রিয়। এখানে কাজ করে যে কোনো কর্মকর্তা স্বাচ্ছন্দ বোধ করেন। তিনি যেখানেই যান ভাল কাজ করবেন বলে প্রত্যাশা করেন। সেই সাথে নবাগত ইউএনও তার কাজের মাধ্যমে দক্ষতার পরিচয় দেবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
পরে বিদায়ী ইউএনও (এডিসি পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) সরকার মোহাম্মদ রায়হান তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বলেন, আমি এখানে কাজ করে মনে হয়েছে এখানকার মানুষ অথিতিপরায়ন, সহনশীল। তবে ৯ মাসের কর্মকালে আমি নিজেকে সফল বলে মনে করিনা। অনেক ব্যর্থতা ছিল। চাটমোহরে অনেক অনিয়ম দুর্নীতি হচ্ছে, যেগুলো আমি বন্ধ করতে পারিনি। অনেক ভুলভ্রান্তি হয়েছে। সেগুলো ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আরো ভাল কাজ করা যেত। এজন্য আমাদের নিজেদের পরিবর্তন করতে হবে। প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক সবার পরিবর্তন হতে হবে। যিনি নতুন এসেছেন তিনি খুবই ভাল অফিসার। তিনি সবার মন জয় করতে পারবেন বলে বিশ্বাস করি।
আর নবাগত ইউএনও মো: সৈকত ইসলাম বলেন, আমি রাজশাহীতে থাকার সময়ই আমি চিন্তা করছিলাম কোথায় যাওয়া যায়। চাটমোহর কাজের ক্ষেত্রে একটি ভাল পরিবেশ রয়েছে বলে জেনে এসেছি। আমার পূর্ববর্তী স্যাররাও এখানে ভাল কাজ করতে পেরেছেন। তাই আমার এখানে আসা। আমি সবার সহযোগিতায় দায়িত্ব পালন করবো। আগের ইউএনও স্যারের অসমাপ্ত কাজ শেষ করার চেষ্টা করবো। অনুষ্ঠানে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধিসহ সুধীজন উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, সরকার মোহাম্মদ রায়হান চাটমোহরে প্রায় দশ মাস দায়িত্ব পালন অবস্থায় পদোন্নতি পেয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হিসেবে পঞ্চগড় জেলায় বদলী হয়েছেন।
আর নাবগত সৈকত ইসলাম এর আগে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে সিনিয়র সহকারি কমিশনার (সাধারণ শাখা) কর্মরত ছিলেন। রাজশাহীর সন্তান সৈকত ইসলাম ৩৩ তম বিসিএস-এ সুপারিশপ্রাপ্ত হন এবং সহকারি কমিশনার পদে যোগদান করেন। কর্মজীবনে ইউএনও পদে চাটমোহর উপজেলা তাঁর প্রথম কর্মস্থল। শিক্ষা জীবনে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চযধৎসধপু বিভাগে অনার্স সম্পন্ন করেন এবং পরবর্তীতে ঞযব টহরাবৎংরঃু ড়ভ গধহপযবংঃবৎ. টক থেকে ঞৎধফব ধহফ ওহফঁংঃৎু বিষয়ে গঝঈ ডিগ্রী অর্জন করেন। ব্যক্তি জীবনে তিনি বিবাহিত এবং দুই সন্তানের জনক।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *