চাটমোহরে করোনা সনাক্ত নিয়ে ইউএনও’র বিভ্রান্তিমুলক তথ্য ; করোনা সনাক্ত আরো একজন

নিজস্ব প্রতিবেদক, পাবনা : পাবনায় আরো একজনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা সনাক্ত হয়েছে। তার বাড়ি চাটমোহর উপজেলার হান্ডিয়াল ইউনিয়নের সোনাবাজু ভিটাপাড়া গ্রামে। এ নিয়ে পাবনায় দুইজনের করোনা সনাক্ত হলো। দু’জনের বাড়িই চাটমোহর উপজেলায়।

রোববার (১৯ এপ্রিল) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেন পাবনার সিভিল সার্জন ডাঃ মেহেদী ইকবাল। তিনি জানান, আক্রান্ত ব্যক্তি নারায়নগঞ্জ ফেরত। তার বয়স ৪০ বছর। গত ১৬ এপ্রিল তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য রাজশাহীতে পাঠানো হয়। রোববার সকালে তার ফলাফল এসেছে পজেটিভ।

এর আগে করোনা সনাক্ত হয় চাটমোহর উপজেলার বামনগ্রামের নারায়নগঞ্জ ফেরত যুবক (৩২)। গত ১৬ এপ্রিল সন্ধ্যার পর তার নমুনা পরীক্ষাও পজিটিভ আসে।

এদিকে, চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সরকার মোহাম্মদ রায়হান শনিবার (১৮ এপ্রিল) রাতে করোনা আক্রান্ত চাটমোহরের দ্বিতীয় রোগীর নাম নিয়ে বিভ্রান্তিমুলক তথ্য দেন গণমাধ্যমকর্মীদের। তিনি জানিয়েছিলেন, করোনা আক্রান্ত দ্বিতীয় ওই ব্যক্তির বাড়িও বামনগ্রামে। তিনি প্রথম আক্রান্ত হওয়া যুবকের বাবা। কিন্তু আজ রোববার (১৯ এপ্রিল) সকালে জানা যায় করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তি নন। তিনি আলাদা ব্যক্তি, বাড়িও আলাদা গ্রামে।

বিষয়টি সম্পর্কে রোববার সকালে ইউএনও সরকার মোহাম্মদ রায়হান জানান, আসলে সিভিল সার্জন অফিস থেকে রোগীর নাম জানিয়েছিল। একই নাম হওয়ার কারণে তথ্য বিভ্রাট হয়েছে। পরে রোববা সকালে আপডেট জানানো হয়েছে রোগীর নাম এক হলেও তার বাড়ি আলাদা গ্রামে। আগের তথ্যটি ভুল ছিল। আসলে কাজ করতে গেলে তো একটু ভুল হয়ই।

এদিকে, উপজেলার একজন সর্বোচ্চ পদে আসীন একজন সরকারি কর্মকর্তার কাছ থেকে এমন ভুল তথ্য পেয়ে ক্ষুব্ধ ও হতাশ চাটমোহরবাসীসহ গণমাধ্যমকর্মীরা। এর আগেও ইউএনও’র বিরুদ্ধে মানুষের সাথে দুর্ব্যবহার, সেবাগ্রহীতা মানুষের ফোন না ধরা, বিশেষ করে খাদ্য সহায়তা দিতে ফোন নাম্বার দিলেও কোনো সাড়া না দেয়াসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *