চাটমোহরে ক্লিনিকে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় মামলা, দুই চিকিৎসক কারাগারে

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি : পাবনার চাটমোহরে ইসলামিক হাসপাতাল নামের ক্লিনিকে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় থানায় মামলা হলে বুধবার দুই ভুয়া চিকিৎসক কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

প্রসূতি মৃত্যুর অভিযোগে মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) মৃত প্রসূতি তাছলিমার পিতা মজনুর রহমান বাদী হয়ে ক্লিনিক মালিক, কথিত ডাক্তারসহ ৩ জনের নামে থানায় মামলা করেন। আসামীরা হলেন, ক্লিনিক মালিক আফ্রাতপাড়া মহল্লার মৃত তোফাজ্জল সরদারের ছেলে আমির হোসেন বাবলু (৫৫), কথিত ডাক্তার নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জালোরা গীর্জার মোড় এলাকার ময়েজ উদ্দিনের ছেলে সাদ্দাম হোসেন নিবির (২৭) ও কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গোরুড়া দক্ষিণপাড়া এলাকার আজিজল হকের ছেলে বড়াইগ্রামের বনপাড়ার বাসিন্দা আসাদুজ্জামান (৩৮)। বুধবার সকালে এই মামলাায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাদ্দাম ও আসাদুজ্জামানকে আদালতে সোপর্দ করে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ।

গত সোমবার রাত ৮টার দিকে পৌর শহরের নারিকেলপাড়ায় অবস্থিত ইসলামিক হাসপাতাল নামের ক্লিনিকে তাছলিমা খাতুনের সিজারিয়ান অপারেশনের সময় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ শুরু হয়। অবস্থা বেগতিক দেখে অপারেশন টেবিলে রোগিকে ফেলে রেখে ক্লিনিক মালিক বাবলু পালিয়ে যায়। এরপর পালানোর চেষ্টা করলে জনগণ সাদ্দাম ও আসাদুজ্জামানকে আটক করেন।

পরে পাবনা নেওয়া হলে তাছলিমাকে মৃত ঘোষনা করা হয়। নিহত তাছলিমা ঢাকার কেরানীগঞ্জের ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী ও চাটমোহর উপজেলার বোঁথর গ্রামের মজনুর রহমানের মেয়ে।

এব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ সেখ নাসীর উদ্দিন বলেন, ভুয়া দুই চিকিৎসককে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। ক্লিনিক মালিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *