চুমুর ঘটনায় পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বিদেশ : স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করে সহকর্মীকে চুমু দেয়ায় সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ম্যাট হ্যানকক। শনিবার টুইটারে এক ভিডিওবার্তা প্রকাশ করে নিজের পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন তিনি। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকে পদত্যাগের বিষয়ে চিঠি দিয়েছেন ম্যাট। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, করোনা মহামারিতে ব্যাপক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে ব্রিটিশ জনগণকে। জনগণের প্রতি স্বচ্ছ থাকতে দায়বদ্ধ ব্রিটিশ সরকার। কিন্তু নিজেই স্বাস্থ্যবিধি না মানায় জনগণকে হতাশ করেছেন বলে স্বীকার করেন তিনি। এর আগে গেলো শুক্রবার ম্যাট হ্যানকক ও তার সহকর্মী গিনা কোল্যাড অ্যাঞ্জেলোর চুমু খাওয়ার একটি সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করে ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড দ্য সান। গণমাধ্যমটির প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত ৬ই মে ম্যাট হ্যানককের কার্যালয়ে ধারণ করা হয় সিসিটিভি ফুটেজটি। ফুটেজটি প্রকাশের পর দেশটির লেবার পার্টি থেকে শুরু করে অনেকে তার পদত্যাগের দাবি তুলেন। তারা দাবি করেন, করোনা বিধিনিষেধ আইন প্রণয়নের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ম্যাট হ্যানকক। আর তিনিই সেই আইন ভঙ্গ করেছেন, যা গুরুতর অপরাধ। দেশের উচ্চপদস্থ একজন কর্মকর্তা হিসেবে তার পদত্যাগ করা উচিত। পদত্যাগের আগে নানা চাপ ও সমালোচনার মুখে বিধিনিষেধ অমান্য করে সহকারীকে চুমু খাওয়ায় হ্যানকক দুঃখ প্রকাশ করেন এমন আচরণের জন্য ক্ষমাও চান। ক্ষমা চাওয়ার পর ডাউনিং স্ট্রিট বলছিল, প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন হ্যানকককে ক্ষমা করে দিয়েছেন। একই সঙ্গে বিষয়টি এখানেই শেষ হিসেবে ভাবতে বলেছেন তিনি। ডাউনিং স্ট্রিটের এক কর্মকর্তা বলেছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ওপর পূর্ণ আস্থা রয়েছে বরিস জনসনের।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *