চুম্বন দৃশ্যে আপত্তির কারণে নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে মামলা

বিনোদন: চুম্বন দৃশ্যে আপত্তির কারণে নেটফ্লিক্সের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বিজেপি নেতা গৌরব তিওয়ারি। ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার জাতীয় সম্পাদক গৌরব টুইট করে নিজেই এ কথা জানান। টুইটে তিনি লিখেছেন, নেটফ্লিক্সে ‘আ স্যুটেবল বয়’ সিরিজে তিনটি চুম্বনের দৃশ্য দেখানো হয়েছে। তার মধ্যে একটি পর্বে, মন্দিরের ভিতর তিনটি চুম্বনের দৃশ্য দেখানো হয়েছে।

তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, হিন্দু মেয়ের সঙ্গে মুসলিম ছেলের প্রেমের গল্পে সব চুম্বন দৃশ্যই কেন মন্দির প্রাঙ্গনের ভিতর দেখানো হয়েছে। তিনি জানান, মধ্যপ্রদেশের রেওয়ায় এফআইআর দায়ের করেন। গৌরব আরো জানান, চুম্বন দৃশ্যের বিরোধিতা তিনি করছেন না। কিন্তু মন্দিরে আরতি চলাকালীন সেই দৃশ্যগুলি শুট করা নিয়ে তিনি আপত্তি জানিয়েছেন। নির্মাতাদের উদ্দেশ্যে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, মসজিদে আযান চলাকালীন এমন দৃশ্য শুট করতে পারতেন? এতটা শৈল্পিক স্বাধীনতা কি পাওয়া যেত? হিন্দুদের সহিষ্ণুতাকে তাদের দুর্বলতা ভাববেন না।

এতে শুধু মধ্যপ্রদেশেরই নয়, ভগবান শিব এবং তার কোটি কোটি ভক্তের আবেগকে অপমানিত করা হয়েছে। আপনাদের ক্ষমা চাওয়া উচিৎ। গৌরব জানান, শিব ভক্তদের জন্য রানি অহিল্যাবাঈ হোলকার মহেশ্বর ঘাটটি উৎসর্গ করেছিলেন। প্রস্তর যুগের হাজার হাজার শিবলিঙ্গ এই ঘাটকে গৌরবান্বিত করে। ধর্মীয় স্থানে ‘লাভ জিহাদ’ প্রচার করা এবং হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে বলে তার অভিযোগ।

এর জন্য নেটফ্লিক্সকে তিনি ধিক্কার জানিয়ে নিজের ফোন থেকে ইতিমধ্যেই নেটফ্লিক্স অ্যাপটি মুছে দিয়েছেন। অন্যদিকে মধ্য প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্রও ঘটনাটি নিয়ে ক্ষুব্ধ। তিনি জানিয়েছেন, আমি কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি নেটফ্লিক্স এবং ওই সিরিজের পরিচালক-প্রযোজকদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের আইনি পদক্ষেপ করা যায় তা খতিয়ে দেখতে।

বিক্রম শেঠের উপন্যাসের উপর ভিত্তি করে তৈরি এই সিরিজ ২৩ অক্টোবর নেটফ্লিক্সে মুক্তি পেয়েছে। টাবু, ইশান খট্টর, তানিয়া মানিকতলা, রসিকা দুগলের মতো অভিনেতাদের দেখা যায় এই সিরিজে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *