ছাত্রলীগ নেতা রিংকু-পল্লব দিনে-রাতে খাদ্যসামগ্রী ও শাকসবজি পৌঁছে দিচ্ছেন বাড়ি বাড়ি

পিপ (পাবনা) : পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি হাবিবুর রহমান রিংকু ও তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক রাহাত হোসেন পল্লবের দাবী, করোনা মোলাবেলায় অঘোষিত লকডাউন পরিস্থিতিতে দিনমজুর খেটে খাওয়া মানুষ দিন কাটাচ্ছে সীমাহীন দুঃখ দুর্দশার মধ্যে। অনেকে মুখ ফুটে বলতে পারছে না তাদের ক্ষুধার কথা। এরকম খেঁটে খাওয়া মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছেন খাদ্য সামগ্রী নিয়ে। পৌঁছে দিচ্ছেন অসহায় মানুষদের বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী ও সবজি।

গেল বুধবার (২২ এপ্রিল) রাতে এই দুই ছাত্রলীগ নেতা তাদের ব্যক্তিগত অর্থায়নে পাবনা পৌর সদরের বিভিন্ন মহল্লায় গিয়ে বাড়িতে চাল, ডাল, তেল, লবন সহ অন্যান্য খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেন। এরপর বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বিকেলে ভ্যানে করে শাকসবজি বিতরণ করেন।

পাবনা শহরে গোবিন্দা মহল্লায় দেখা যায়, ভ্যানে করে কর্মহীন দিনমজুর মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তারা সবজি বিতরন করছেন তারা। সাধারণ খেঁটে খাওয়া মানুষ প্রয়োজন মত ভ্যান থেকে শাক, কুমড়া, লাউ, পটল, করলা সহ বিভিন্ন সবজি সংগ্রহ করছেন।

এ সময় সেখানে সবজি নিতে আসা মলেদা বেগম জানান, মাইনষের বাড়িত বাড়িত কাম করি, তা দিয়েই সংসারডা চালাইতেম, এহন করোনা আইসে সব কাম বন্ধ হয়া গ্যাছে। ঘরে খাবার-দাওয়ার নাই। রাতে রিংকু, পল্লব ভাইরা বাড়িত আইসা চাল ডাল তেল ডিম দিয়ে গ্যাছে। এহন আবার তরকারি দিয়ে গেল। আল্লাহর রহমতে কয়ডা দিন ভালোই চলবিনি।

এই উদ্যোগ বিষয়ে জানতে চাইলে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক রাহাত হোসেন পল্লব বলেন, দেশের যে কোন দুর্যোগে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। একজন ছাত্রলীগের কর্মী হিসেবে বর্তমান পরিস্থিতিতে দিনমজুর মানুষ, কর্মহীন মানুষেরর কষ্ট কিছুটা লাঘব করতে ও পুষ্টি চাহিদা পুরন করতে আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা।

আরেক উদ্যোক্তা পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান জানান, পাবনা সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স’র অনুপ্রেরণায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের দিকনির্দেশনায় আমরা দরিদ্র কর্মহীন শ্রমজীবি ক্ষুধার্ত পরিবারের মাঝে শাকসবজি ও প্রয়োজনীয় খাদ্য বিতরণ শুরু করছি। আমাদের ইচ্ছা রয়েছে রমজান মাস জুড়ে এই কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার। আশা করি পাবনা জেলা ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীসহ সবাই মিলে এই দুর্যোগ মোকাবেলা করতে পারব।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *