জাস্টিন ট্রুডোকে পাথর মারলেন বিক্ষোভকারীরা

বিদেশ: খারাপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হলো কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোকে। একটি ক্যাম্পেইনে তাকে লক্ষ্য করে পাথর ছুড়ে মেরেছেন বিক্ষোভকারীরা। তবে তিনি এই ঘটনায় আহত হননি বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। বিক্ষোভকারীরা তার দিকে ছোট পাথর নিক্ষেপ করেছিল। আগস্টের মাঝামাঝি সময়ে আগাম নির্বাচন ডেকেছিলেন জাস্টিন ট্রুডো। তার দল বামপন্থী লিবারেল পার্টি সংখ্যা গরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারবেন এই আশায়ই আগাম নির্বাচন ডাকা হয়েছিল। কন্তু কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক করা এবং অন্যান্য বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের কারণে তার নির্বাচনী প্রচারণা ব্যাহত হয়। একদল বিক্ষুব্ধ বিক্ষোভকারীদের হামলায় এক সপ্তাহের বেশি সময় আগে নির্বাচনী প্রচারণা বাতিল করতে বাধ্য হন প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। াংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ট্রুডো জানান, তার কাঁধে আঘাত লেগেছে। এই ঘটনাকে তিনি ২০১৬ সালে তার ওপর এক নারীর কুমড়ো বীজ ছুড়ে মারার সঙ্গে তুলনা করেছেন। ানাডার সিটিভি ন্যাশনাল নিউজের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, গণমাধ্যমের একটি বাসে অবস্থান করা দুই ব্যক্তিকেও পাথর ছুড়ে মারা হয়েছে। যদিও তারা আহত হননি। বিরোধী কনজারভেটিভ পার্টির নেতা এরিন ও’তোলে এই ঘটনাকে ন্যাক্কারজনক বলে উল্লেখ করেছেন। তনি এক টুইট বার্তায় বলেন, রাজনৈতিক সহিংসতা কখনও মেনে নেওয়া হবে না এবং আমাদের গণমাধ্যমকে হুমকি, নিপীড়ন এবং সহিংসতা মুক্ত রাখতে হবে। ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক করার বিষয়ে ট্রুডো যে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন তা আগামী ২০ সেপ্টেম্বরের নির্বাচনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হয়ে উঠেছে। ত মাসে কানাডা সরকার এক ঘোষণায় জানায় যে, সব সরকারি কর্মকর্তাকে আগামী অক্টোবরের শেষ নাগাদ ভ্যাকসিন নিতে হবে। যদি তারা ভ্যাকসিন না নেন তবে তাদের চাকরিও হারাতে হতে পারে।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *