জেনোয়াকে হারিয়ে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে জুভেন্টাস

স্পোর্টস: সিরি এ লীগে ল্যাৎসিওর সঙ্গে চার পয়েন্টের ব্যবধান রেখে তালিকার শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে জুভেন্টাস। মঙ্গলবার তুরিনোতে অনুষ্ঠিত লীগ ম্যাচে তারা ৩-১ গোলে হারিয়েছে জেনোয়াকে। পাওলো দিবালা, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবং ডগলাস কস্তার সবাই একক নৈপুন্যে গোল করে রেলিগেশনের হুমকিতে থাকা জেনোয়ার বিপক্ষে এগিয়ে দেন জুভেণ্টাসকে। এই জয়ে সিরি এ লীগে টানা নবম শিরোপা জয়ের পথে স্বাচ্ছন্দ্যেই এগিয়ে গেল মারিজিও সারির দল।

অবশ্য শেষ বাঁশি বাজার ১৪ মিনিট আগে ধুকতে থাকা স্বাগতিক দল জেনোয়ার হয়ে একমাত্র গোলটি পরিশোধ করেছেন আন্দ্রে পিনামন্টি। ফেব্রুয়ারির শেষভাগে লিয়র কাছে হার মানার পর এই প্রথম জুভেন্টাসের জালে বল প্রবেশ করলো। তবে এতে চ্যাম্পিয়নদের টানা ষষ্ঠ জয়ে কোন সমস্যা হয়নি। খেলা শেষে সারি বলেন,‘ এটি ছিল দারুন এক দলগত সাফল্য। আমাদের গোলগুলো ছিল অসাধারন। ইতালিয়া কাপের ফাইনালে হাতাশার পরাজয়ের পর এই দলটি বেশ ভালভাবেই ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এটি সময়ের ব্যাপার মাত্র।’

স্তাদিও লুইজি ফেরারির ম্যাচে এই জয়ে অবশ্য স্নায়ুক্ষয়ী পরীক্ষা দিতে হয়েছে সারির দলকে। কারণ স্বাগতিক গোল রক্ষক মাত্তিয়া পেরিন প্রথমার্ধে একাই প্রতিহত করেছেন ৫টি গোল। যে কারণে গোল শুন্য শেষ হয় প্রথমার্ধ। যদিও আগেভাগেই জয় নিশ্চিত করার জন্য প্রতিপক্ষকে চাপে রেখেছিল জুভেন্টাস। ম্যাচের ৫০ মিনিটে গোল করে জুভদের এগিয়ে দেন দিবালা। একক প্রচেস্টায় বল নিয়ন্ত্রনে নিয়ে দারুন দক্ষতায় সফল সমাপ্তি ঘটান তিনি (১-০)। ৭ মিনিট পর গোল করে জুভেন্টাসকে দ্বিগুন ব্যবধানে পৌছে দেন রোনালদো (২-০)।

৭৩ মিনিটে গোল করে আটবারের টানা চ্যাম্পিয়নদের নিরাপদ দূরত্বে নিয়ে যান কস্তা। ম্যাচের ৭৬ মিনিটে স্বাগতিক দলের হয়ে একটি মাত্র গোল পরিশোধ করতে সক্ষম হন পিনামন্টি। এর আগে অনুষ্ঠিত দিনের অপর ম্যাচে ল্যাৎসিও পিছিয়ে পড়েও ২-১ গোলে হারিয়েছে ধুকতে থাকা তুরিনোকে। ম্যাচের ৫ম মিনিটেই অবশ্য গোল হজম করতে হয়েছে ল্যাৎসিওকে। পেনাল্টি থেকে গোল করে স্বাগতিক তুরিনোকে এগিয়ে দেন আন্দ্রে বেলত্তি। তবে বিরতির পর পরই ৪৮ মিনিটে ইমোবিলের গোলে সমতা ফিরে পায় ল্যাৎসিও।

এটি ছিল আসরে ইমোবিলের ২৯তম গোল। ম্যাচের ৭৩ মিনিটে মার্কোপারোলোর ডিফ্ল্যাক্টেড শটে আগের ম্যাচের মত জয় নিশ্চিত হয় জুভেন্টাসের সঙ্গে শিরোপার লড়াইয়ে মেতে উঠা ল্যাৎসিও। দুইদিন আগে ফিওরেন্টিনার বিপক্ষেও একই ভাবে ২-১ গোলের জয় পেয়েছিল ল্যাৎসিও।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *