জয়পুরহাটে আগুনে দগ্ধ হয়ে একই পরিবারের ৮ জনের মৃত্যু

ডেস্ক রিপোর্ট: জয়পুরহাট শহরের আরামনগরে একটি বাড়িতে শর্ট সার্কিট থেকে লাগা আগুনে দগ্ধ হয়ে একই পরিবারের ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে ঘটনাস্থলেই মারা যায় ৩ জন। ঢাকায় নেয়ার পথে মৃত্যু হয় বাকি ৫ জনের। বুধবার রাত ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা হয়। ঘটনা তদন্তে ৩ সদস্যের কমিটি করেছে জেলা প্রশাসন।

একসাথে ৮টি মরদেহ সম্প্রতি আর দেখেনি জয়পুরহাটবাসী। একই পরিবারের আট জনের বিদায়ে শোকের ছায়া নেমেছে পুরো এলাকায়।

বুধবার রাত ১০টার দিকে শহরের আরামনগর এলাকার একতলা টিনশেড বাড়িটিতে ভয়াবহ আগুন দেখে ছুটে যান প্রতিবেশীরা। ভেতর থেকে শোনা যাচ্ছিল আর্তচিৎকার। কিন্তু ঘরের মূল দরজার কাছেই রান্নাঘরে আগুন লাগায় ভেতরে ঢোকা যাচ্ছিল না। পরে, দেয়াল ভেঙে দগ্ধ ৫ জনকে বের করা হয়। ভেতরে পাওয়া যায় ৩ জনের মরদেহ।

দগ্ধ ৫ জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে নেয়া হয় জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে। তবে, তাদের শরীরের বেশিরভাগ অংশ পুড়ে যাওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে। অবশ্য, ঢাকা পৌঁছার আগেই মারা যান ৫ জন।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তারা বলছেন, রাইস কুকারে রান্নার সময় বৈদুতিক গোলযোগ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

আগুনে নিহতরা হলেন-দুলাল ও তার স্ত্রী মোমেনা। তাদের ছেলে মুমিন ও তার স্ত্রী পরিনা খাতুন। মুমিনের তিন মেয়ে হাসি খুশি ও বৃষ্টি এবং ছেলে নূর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *