স্বামীকে আটকে স্ত্রীকে গণধর্ষণ, আটক ৫

ডেস্ক রিপোর্ট : টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে তিন দফায় তিনজন ধর্ষণ করেছে। এ ঘটনায় পুলিশ পাঁচ ব্যক্তিকে আটক করেছে। গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকায় ওই ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, রাত ৯টার দিকে কালিহাতী থেকে ওই দম্পতি টাঙ্গাইল শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকায় গেলে কয়েকজন যুবক তাঁদের ঘেরাও করে। পরে সেখান থেকে স্বামী-স্ত্রীকে কিছু দূরে ডিসি লেক পাড়ে নিয়ে যায় ও স্বামীকে আটকে রেখে তিন যুবক স্ত্রীকে ধর্ষণ করে। পরে তারা ওই নারীর স্বামীকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয় ও পরে আরো দুই জায়গায় নিয়ে দুই দফায় ওই নারীকে ধর্ষণ করে। এদিকে এর মাঝে স্বামী পুলিশে খবর দেন। পুলিশ রাত আড়াইটার দিকে স্থানীয় স্কুলঘর এলাকা থেকে ওই নারীকে উদ্ধার ও পাঁচ যুবককে আটক করে। টাঙ্গাইল মডেল থানার ওসি সায়েদুর রহমান বলেন, স্বামী-স্ত্রী বাসস্ট্যান্ডে ছিল রাত ৯টার দিকে। স্বামীকে ভয় দেখিয়ে স্ত্রীকে কিছুটা দূরে নিয়ে তিনজন ধর্ষণ করে। ধর্ষণ করার পর, আমরা টের পাওয়ার পর ওই তিনজনকে ধরেছি। ধর্ষণ করার উদ্দেশে ওখানে যাওয়া আরো দুজনকে ধরেছি এবং ভিকটিমকে উদ্ধার করছি। ওই নারী বর্তমানে হাসপাতালের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে আছে। আসামিরা ধরা আছে, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বর্তমানে মামলা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান। টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ওই নারী বলেন, বাসস্ট্যান্ড থাইকা পুকুরপাড়েরওইখানে নিছে, সাড়ে ১০টার দিকে ওইখানে ধর্ষণ করছে। তারপর আরেকটা চিপা জায়গায় নিছে সাড়ে ১১টায়, আবার স্কুলঘরে নিছে আড়াইটায়। তিনজন ধর্ষণ করছে। দুইজন ধর্ষণ করতে চাইলে পুলিশের কারণে করতে পারে নাই। পরে আমারে ভাগায়া দিছে। ওই দুজনও করত ধর্ষণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *