দ্বিতীয় দফায় একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্ত চীনে

বিদেশ : নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে চীনে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আরও ১৭ জন প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৮ এপ্রিলের পর এটাই একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। চীনের মূল ভূখ-ে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। এর মধ্যেই একদিন আগেই করোনার উৎসস্থল উহানে একজনের করোনায় আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে।

গত ৩ এপ্রিলের পর অর্থাৎ টানা ৩৭ দিন পর প্রথমবার সেখানে কারো আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেল। গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরেই প্রথম করোনার উপস্থিতি ধরা পড়ে। এরপর থেকেই সেখানে কড়াকড়ি আরোপ করা হয়। উহান একেবারে অন্য শহরগুলো থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। গত কয়েক মাসের চেষ্টায় উহানসহ পুরো চীনেই করোনার বিপর্যয় কাটিয়ে ওঠা সম্ভব হয়েছে।

চীন আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা শূন্যতে নিয়ে যেতে সক্ষম হলেও নতুন করে আবারও আক্রান্ত বাড়তে থাকায় দ্বিতীয় দফায় সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি তৈরি হচ্ছে। সাম্প্রতিক সময়ে কড়াকড়ি তুলে নিয়ে অর্থনীতি পুণরায় সচল করার পরিকল্পনা করছে বেইজিং। এদিকে রোববার নতুন করে আক্রান্তদের মধ্যে সাতজনই বহিরাগত। তারা মঙ্গোলিয়া থেকে ভ্রমণের উদ্দেশে চীনে গেছে।

আগের দিনের হিসাব অনুযায়ী, নতুন করে বহিরাগত দু’জন আক্রান্ত হয়েছে। এদিকে রোববার উহানে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে পাঁচজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। গত ১১ মার্চের পর ওই শহরে এটাই সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। চীনে এখন পর্যন্ত মোট ৮২ হাজার ৯১৮ জন প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং এখন পর্যন্ত মারা গেছে ৪ হাজার ৬৩৩ জন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *