নারী শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ঈর্ষণীয় সাফল্য দেখিয়েছে -এমপি প্রিন্স

মিজান তানজিল,পাবনা : পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি বলেছেন, একটি দেশের টেকসই উন্নয়ন তখনই সম্ভব, যখন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা ও মানবসম্পদের উন্নয়ন ঘটে। বাংলাদেশে তেমনটি ঘটতে শুরু করেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার ২০০৮সালে রাষ্ট্র ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত হয়। মোটামুটি এই সরকারের শাসনকাল ১০বছর । ১০বছর আগে বাংলাদেশ এমনকি বিশ্বের কোনো দেশ ভাবতেও পারেনি ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ একটি মধ্য আয়ের দেশ বলে পরিচিতি পাবে। শেখ হাসিনার সরকার ২০০৯ সালের জানুয়ারি মাসে রাষ্ট্র ক্ষমতা হাতে নেওয়ার পরপরই রাষ্ট্র পরিচালনায় এমন কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করে; যার ফলে দিন দিন দেশের মাথাপিছু আয় বাড়তে থাকে, দেশের অর্থনীতি দিন দিন চাঙ্গা হয়ে উঠতে থাকে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি দেশের শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, বিদ্যুৎ্, কৃষি এবং অন্যান্য সেক্টরে উন্নয়নের হাওয়া বইতে থাকে। আমাদের দেশে একটি নীতিবাক্য প্রচলিত আছে শিক্ষাই জাতির মেরুদন্ড। অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি যদি শিক্ষার উন্নয়ন না ঘটে, সে অর্থনৈতিক উন্নয়ন স্থায়ী রূপ পেতে পারে না। তবে আশার কথা, আমাদের দেশে অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষা ও মানবসম্পদের উন্নতি সমান্তরালভাবে এগিয়ে চলেছে। এ মুহূর্তে আমরা শিক্ষা ও মানবসম্পদ উন্নয়নের দিকে একটু দৃষ্টি দিতে পারি।
এমপি প্রিন্স আরো বলেন, যে জাতি নারীদেরকে শিক্ষিত করে তুলতে পারে, সে জাতির উন্নতি অবধারিত। বর্তমান সরকার শিক্ষায় নারী-পুরুষের সমতা অর্জনে প্রশংসনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। বাংলাদেশে শিক্ষায় ছেলেদের চেয়ে মেয়েদের অগ্রগতি চোখে পড়ার মতো। একসময় নারী শিক্ষা ছিল শুধু উচ্চবিত্ত ও শহরের কিছু পরিবারের মধ্যে সীমাবদ্ধ। সেই ধারণা থেকে বেরিয়ে এসে নারী শিক্ষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আজ ঈর্ষণীয় সাফল্য দেখিয়েছে। প্রায় শতভাগ মেয়েই এখন স্কুলে যাচ্ছে। মেয়েদের জন্য বিদ্যালয়ে যে পরিবেশ থাকা দরকার, সরকার তা নিশ্চিত করেছে।
গতকাল শনিবার সেন্টাল গার্লস হাইস্কুল আয়োজিত মা সমাবেশ ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যকালে তিনি এসবস কথা বলেন।এর আগে তিনি স্কুলটির নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করেন।
এসময় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আবু ইছাক শামিমের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সম্পাদক এ্যাড: বেলায়েত আলী বিল্লু, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল বারী বাকি, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শাওয়াল বিশ^াস,জেলা আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ আব্দুল হান্নান,উপজেলা শিক্ষা অফিসার ওয়াহেদুজ্জামান,বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তালেবুর রহমান,বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সৌমেন সাহা ভানু,কথিকা রানী অধিকারী,উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ রাসেল আলী মাসুদ,স্বেচ্ছাসেবকলীগের সম্মেলন কমিটির আহব্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান সুইট,উপজেলা আওয়ামীলীগের অর্থবিষয়ক সম্পাদক হিরক হোসেন,পৌর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান এপ্রিল,পৌর আওয়ামীলীগ নেতা কামরুজ্জামান রকি,জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিবলী সাদিক, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ফরিদুর ইসলাম বাবু, বুলবুল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি শামসুদ্দিন জুন্নুন,সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সরদার মিঠু আহমেদ,ফিরোজ খান সহ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থ ও অভিভাবকবৃন্দ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *