নায়িকারা সুপারহিটে নেই, অভিনেত্রীরা এগিয়ে

বিনোদন সালতামামি: টলিউডে ২০১৮ সালটা কেমন গেল তার বিচার করতে বসে দেখা গেছে, এই বছরে নায়িকা বলে পরিচিতরা মোটেই সুপারিহিট তালিকায় নেই। বরং অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিত, যারা গ্ল্যমারের ধারে কাছে নেই, তারাই এগিয়ে রয়েছেন। ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত চারটি ছবিতে অভিনয় করলেও সুপাহিট তালিকায় একটিও নেই।
প্রসেনজিতের সঙ্গে জুটি বেঁধে ঋতুপর্ণা ’দৃষ্টিকোন’ ছবিতে সফল হলেও সুপাহিট হয় নি ছবিটি। তেমনি তার অভিনীত ’ভালোবাসার বাড়ি’ দর্শকদের পছন্দ হলেও ’ধারা¯œান’ ও ‘গুডনাইট সিটি’তে ঋতুপর্ণা মোটেই সাফল্য দেখাতে পারেন নি। আর তাই দুটি ছবিই ফ্লপ করেছে। মোটের ওপর বছরটা ঋতুপর্ণার পক্ষে খুব একটা ভালো যায়নি। আরেক নায়িকা জয়া আহসান সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ’এক যে ছিল রাজা’য় দর্শকদের মনে দাগ ফেলতে পারলেও তার অভিনীত ’আমি জয় চ্যাটার্জি’ ও ’ক্রিসক্রস’ একদমই দর্শক মনে দাগ ফেলতে পারেনি।
বরং সোহিনী এদের তুলনায় অনেকটাই সফল বলা যায়। সোহিনী অভিনীত ’বিদায় ব্যোমকেশ’ ও ’ব্যোমকেশ গোত্র’ এই বছরের হিট ছবির তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে। ’আহারে মন’ ছবিতেও সোহিনী সফল। তবে ’হ্যাপি পিল’ ছবিতে তিনি দর্শক মনে দাগ ফেরতে পারেন নি।
আর টেলিভিমন সিরিজ ‘ভূমিকন্যা’য় সোহিনী একেবারেই ফেল করেছেন। অন্য নায়িকাদের মধ্যে কোয়েল মল্লিক ‘ঘরে অ্যান্ড বাইরে’তে সফল হয়েছেন। শুভশ্রীকেও ‘হনিমুন’ ছবিতে দর্শরা পছন্দ করেছেন। নায়িকা শ্রাবন্তীর অভিনয় ‘উমা’তে দর্শক মনে দাগ ফেললেও ‘পিয়া রে’ এবং ‘বাঘ বন্দি খেলা’ ছবিতে ডাহা ফেল করেছেন। আরেক নায়িকা রুক্ষিণী মৈত্র ‘কবীর’ ছবিতে ভালো অভিনয় করলেও হিট ছবির তালিকায় নেই। তনুশ্রী চক্রবর্তীর অবস্থাও তথৈবচ।
তার অভিনীত ‘ফ্ল্যাট নং ৬০৯’ ছবিটি একেবারেই চলেনি। পায়েল সরকার, ঋত্বিকা সেনন, সায়ন্তিকাদের এই বছর খুঁজেই পাওয়া যায়নি। স্বস্তিকার ‘আমি আসব ফিরে’ ছবি দর্শকদের মোটেই খুশি করে নি। তেমনি রাইমা সেনও ‘কায়া’ ও ‘রিইউনিয়ন’ ছবিতে অভিনয় করলেও তেমনভাবে দাগ কাটতে পারেন নি। নায়িকাদের তালিকায় নুসরাত, মিমি চক্রবর্তী ও পাওলি দামের অবস্থাও মোটেই উল্লেখ করার মতো হয়নি। অথচ মিমি এ বছর তিনটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। নুসরাত জাহান বাংলাদেশের সুপারহিট নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে জুটি করেও সফল হতে পারেন নি।
নায়িকাদের এই যখন হাল তখন নায়িকা নন এমন বেশ কয়েকজন ভালো অভিনেত্রী সুনাম বজায় রেখেছেন। এই বছরের উল্লেখযোগ্য ছবি ‘সোনার পাহাড়’-এ তনুজার অভিনয় সকলকে মুগ্ধ করেছে। আরেক অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য ‘হামি’ ছবিতে দিদিমণির ভূমিকায় সকলের মন জয় করেছেন। ’কিশোরকুমার জুনিয়র’ ও ‘জেনারেশন আমি’ ছবি হিসেবে সফল না হলেও অপরাজিতার অভিনয় দর্শকদের পছন্দ হযেছে। অবশ্য তার ‘ক খ গ ঘ’ মোটেই জমেনি। অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তীও এ বছরে সফল অভিনেত্রীদের তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন। তার অভিনীত ‘পিউপা’ ও ‘উড়নচন্ডী’ ব্যবসার নিরিখে সফল না হলেও সুদীপ্তা চুটিয়ে অভিনয় করেছেন ছবি দুটিতে। আর ’ময়ূরাক্ষী’তেও সুদীপ্তার অভিনয় সকলকে মুগ্ধ করেছে। চ’র্ণি গঙ্গোপাধ্যায় ‘দৃষ্টিকোন’ ও ‘হামি’ ছবিতে ফাটাফাটি অভিনয় করেছেন। ‘গুপ্তধনের সন্ধানে’ ছবিতে ঈশা সাহা ও ‘মৌমকেশ গোত্র’ ও ‘জেনারেশন আমি’তে সৌরীসেনী মৈত্র এ বছর নজরকাড়া অভিনয় করেছেন।
ছবি হিসেবে নজর কেড়েছে:
এ বছর টলিউডে যেসব ছবি নজর কেড়েছে তার মধ্যে অনেকেই ব্যবসায়িক সাফল্য পান নি ঠিকই কিন্তু দর্শকের শুভেচ্ছা পেয়েছেন। সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘এক যে ছিল রাজা’ এবং ‘উমা’ সকলের পছন্দের তালিকায় ছিল। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘দৃষ্টিকোন’ হিট করেছে। একই ভাবে নন্দিতা রায়ের ‘হামি’ ছবিটিও দর্শকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে। সৌকর্য ঘোষালের ‘রেইনবো জেলি’ বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে। প্রীতম ডি গুপ্তের ‘আহারে মন’ ছবিটি অনেকেরই মন ছুঁয়ে গিয়েছে। বছরের শেষে পাভেলের ‘রসগোল্লা’ সকলকে মুগ্ধ করেছে বিষয়গুণে। বিষয়ের নতুনত্বের গুণে ইন্দ্রশীষ আচার্যের ‘পিউপা’ সমালোচকদের প্রশংসা পেয়েছে। তবে কোনো ছবিই ২০১৮ তে সুপাহিট হয়ে উঠতে পারেনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *