নিউইয়র্কে করোনায় একদিনে ৭ বাংলাদেশির মৃত্যু

ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ বাংলাদেশি ও ২ জন বিভিন্ন রোগে মারা গেছেন। দেশটিতে একদিনে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও প্রায় এক হাজার ৮০০ জন। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৪ হাজার ৩৮৪ জনেরও বেশি। ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যমতে, দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ৬ লাখ ৭৩ হাজার ২১৫ জন।

এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৫৭ হাজার ২৩২ জন। তবে সিটির গভর্নরের তথ্য অনুযায়ী নিউইয়র্কে আক্রান্তের এবং হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা কমেছে। এ ছাড়া গত ৭ দিনের তুলনায় মৃত্যের সংখ্যাও কমেছে। তবে বাংলাদেশিদের মৃত্যুর মিছিল এখনো থামেনি। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ বাংলাদেশি করোনায় এবং আরও ২ জন বিভিন্ন রোগে মারা গিয়েছেন। মৃতরা হলেন- সিলেটের মৌলভীবাজারের নিউইয়র্ক প্রবাসী রউফ আহমদ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল রাত ১২টা ১০ মিনিটে জ্যামাইকা হাসপাতালে মারা যান।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। নিউইয়র্কের এস্টোরিয়া প্রবাসী তাজুল ইসলাম (৫২) করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল ভোর ৬টার সময় এস্টোরিয়ার মাউন্টসিনাই হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। ভার্জিনিয়ায় বসবাসকারী ফরিদ উদ্দিন করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল সকাল ৮টায় ভার্জিনিয়ার উডব্রিজ হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৬২ বছর। তিন প্রায় ৭ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার দেশের কুমিল্লায়। তিনি তার ছেলে জাহিদ ইসলামের সাথে থাকতেন। জানা গেছে, জাহিদ ইসলামও বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন। হবিগঞ্জের বাহুজল থানার সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মঈন চৌধুরী গত ১৬ এপ্রিল সকাল মিশিগানের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, তিনি বার্ধক্যজনিক কারণে মারা গেছেন। বিয়ানীবাজারের কসবা গ্রামের নিউইয়র্কের ওজনপার্ক প্রবাসী মোহাম্মদ আবদুল হক উতুল করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল দুপুর ১২টায় নিউইয়র্কের লংআইল্যান্ডের নর্থসোর হাসপাতালে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। মেরিল্যান্ডের আপার মার্লবরোর বাসিন্দা জামিলা আহমেদ পিনকি (৫০) ইন্তেকাল করেছেন। গত ১৪ এপ্রিল থেকে তিনি অসুস্থ্যবোধ করছিলেন এবং ১৫ এপ্রিল সকালে তিনি তার মা রাফিয়া আহমেদের কোলে মাথায় রেখে শুতে চাইলে বোন সামিনা খান তাকে তার মায়ের কোলে শুইয়ে দেন। মায়ের কোলে শুয়ে থাকা অবস্থায় তিনি মৃত্যুরকোলে ঢলে পড়েন। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামের সন্তান জামিলা আহমেদ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন না। তবে তিনি করোনাভাইরাসের কোনো পরীক্ষা করাননি। তিনি কিডনিসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত ছিলেন। স্ত্রী জামিলা আহমেদ পিনকির আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া চেয়েছেন তার স্বামী মোহাম্মেদ মোকাদ্দেম। কুইন্সের ওজনপার্কের বাসিন্দা আবদুল জলিল ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি ১৬ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০টায় তার ওজনপার্কের বাসায় ইন্তেকাল করেন। কুইন্সের ওজনপার্কে বসবাসকারী মোহাম্মদ রহমান করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী এবং এক কন্যাসন্তান রেখে গেছেন। নিউইয়র্ক প্রবাসী আবু তাহের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ১৬ এপ্রিল বিকেলে ৪টায় ব্রঙ্কসের লেবানন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তার দেশের বাড়ি বাংলাদেশের বুড়ির চং কুমিল্লা। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, চার পুত্র, তিন কন্যাসহ আত্মীয়স্বজন রেখে গেছেন। এ ছাড়াও নিউইয়র্কে সাগর নন্দী (৫০) নামে একজন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সাগর নন্দীর অবস্থা সংকটাপন্ন বলে তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে।

বিশ্বের ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যায় সবদেশের শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে করোনার হানায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম শনাক্ত করা হয় করোনাভাইরাস।

দেশটিতে এ পর্যন্ত মোট মারা গেছে ৩ হাজার ৩৪২ জন, আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার ৩৪১ জন। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৭৭ হাজার ৮৯২ জন সুস্থ হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় চীনে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৪৬ জন, আর মারা গেছে ১ জন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!