পরিবহন ও যোগাযোগ খাতে ৬৪ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা বরাদ্দ

অর্থনীতি : উন্নয়ন বাজেটের সর্বোচ্চ ২৫ দশমিক ২ শতাংশ বরাদ্দ পাচ্ছে পরিবহন ও যোগাযোগ খাত। এ খাতে মোট বাজেটের ১১ দশমিক ২ শতাংশ বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। আর্থিক হিসাবে এ খাতে প্রস্তাবিত বরাদ্দের পরিমাণ ৬৪ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা।

৬টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগকে এ বরাদ্দ দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। এগুলো হচ্ছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ, রেলপথ মন্ত্রণালয়, নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং সেতু বিভাগ। প্রস্তাবিত বাজেটে দেখা গেছে, এ খাতে চলতি অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের তুলনায় নতুন অর্থবছরে ৬ হাজার ৯৩ কোটি টাকা বেশি অর্থ বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটে পরিবহন ও যোগাযোগ খাতে ৫৮ হাজার ৪৮৭ কোটি টাকা বরাদ্দ রয়েছে। মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ প্রস্তাব করা হয়েছে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের জন্য। এর পরের অবস্থানে রয়েছে রেলপথ মন্ত্রণালয়, সেতু বিভাগ, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়।

এর মধ্যে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগে ২৯ হাজার ৪৪১ কোটি টাকা, রেলপথ মন্ত্রণালয়ে ১৬ হাজার ৩২৬ কোটি টাকা ও নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয়ে ৩ হাজার ৯৯৯ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে। এ ছাড়া বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের জন্য ৩ হাজার ৬৮৮ কোটি টাকা, ডাকা ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের জন্য ৩ হাজার ১৪৬ কোটি টাকা এবং সেতু বিভাগের জন্য ৭ হাজার ৯৮০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে।

রোববার জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল যোগাযোগ অবকাঠামো প্রসঙ্গে বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশের মর্যাদায় উন্নীত করার লক্ষ্যে আধুনিক, নিরাপদ এবং পরিবেশ-বান্ধব পরিবহন ও যোগাযোগ অবকাঠামো নিশ্চিত করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

সে লক্ষ্যে সরকার দেশের সড়কপথ, সেতু, রেলপথ, নৌ-পথ এবং আকাশপথের সমন্বয়ে সামগ্রিক যোগাযোগ অবকাঠামো খাতে বিপুল বিনিয়োগের মাধ্যমে একটি সমন্বিত নেটওয়ার্ক তৈরির ওপর গুরুত্বারোপ করছে। মন্ত্রী আরো বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে নির্মাণাধীন পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। ইতোমধ্যে মাওয়া ও জাজিরা সংযোগ সড়ক ও সার্ভিস এরিয়া-২ এর নির্মাণ কাজ শতভাগ সম্পন্ন হয়েছে।

মে মাস পর্যন্ত পদ্মা সেতু প্রকল্পের ভৌত অগ্রগতি ৭৯ শতাংশ। দৃশ্যমান হয়েছে প্রায় সাড়ে ৪ কিলোমিটার।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *