পাকশীতে রেলওয়ের জায়গা থেকে উচ্ছেদের আগে পূনর্বাসনের দাবিতে মানববন্ধন

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি : ঈশ্বরদীর পাকশীতে ১০-১২ জন মুক্তিযোদ্ধা, তাদের পরিবারসহ ব্রিটিশ আমল থেকে বসবাসকারী প্রায় ১০/১২ হাজার পরিবারকে উচ্ছেদের আগে পুনর্বাসন ও ক্ষতিপুরণ প্রদানের দাবি জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা-জনতা ও পাকশীর অধিবাসীরা। মানবিক কারণে করোনা মহামারির এই দুঃসময়ে তাদের উচ্ছেদ না করার দাবি জানিয়ে রোববার আবারো প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে ঈশ্বরদী শহরে মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী।

বক্তারা বলেন, রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কারণে পাকশীতে রেলওয়ের জায়গায় ব্রিটিশ আমল থেকে বসবাসকারীদের উচ্ছেদের নোটিশ দেয় রেলওয়ে বিভাগ। এরপর থেকে উচ্ছেদ আতংকে নির্ঘুম রাত কাটছে বাসিন্দাদের। প্রস্তাবিত উচ্ছেদ এলাকার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, শতবর্ষী গাছ, বধ্যভূমি সহ নানা স্থাপনা। সেখানে বসবাস করছেন মুক্তিযোদ্ধাসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার অন্তত ১২ হাজার পরিবার। এমন পরিস্থিতিতে তারা উচ্ছেদ আতংকে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। তাই উচ্ছেদের আগে পূনর্বাসন ও ক্ষতিপূরণের দাবি জানান ভুক্তভোগীরা।

এলাকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতারাও অংশগ্রহণ করেন এ কর্মসূচীতে। মানববন্ধন কর্মসূচীতে সভাপতিত্ব করেন মুক্তিযুদ্ধের কোম্পানি কমান্ডার কাজী সধরুল হক সুধা। বক্তব্য দেন মুক্তিযোদ্ধা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি মোহাম্মদ রশিদুল্লাহ, পাকশীর সাবেক চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা হবিবুল ইসলাম হব্বুল, পাবনা জেলা পরিষদের সদস্য ছাইফুল আলম বাবু মন্ডল, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার রফিকুল ইসলাম রফিক, পাকশী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম বাবু, যুগ্ম সম্পাদক আবু তারেক, জেলা জাসদের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক যুবলীগ নেতা নিজামুল ইসলাম বিপু, ব্যবসায়ী মাহাবুল আলম, নুর হোসেন স্বপন, পাকশী উদিচীর সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন বাবু, উপজেলা খেলাঘরের সিনিয়র সহ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম শিরু, সঙ্গীত শিল্পী আনিকা শামা উপমা, রেলওয়ে পোষ্য সোসাইটির পাকশী বিভাগীয় শাখার সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান লিটন, সাধারণ সম্পাদক সুকান্ত লিটন প্রমুখ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *