পাকিস্তানের করাচিতে বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : পাকিস্তানের করাচিতে চীনা কনস্যুলেট ভবনের কাছে বন্দুকধারীর হামলায় কমপক্ষে দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। পুলিশকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন জানিয়েছে, গোলাগুলি শেষ হয়েছে।

এরইমধ্যে হামলার দায় স্বীকার করেছে বেলুচিস্তানের বিদ্রোহী সংগঠন বেলুচ লিবারেশন আর্মি। সিন্ধু পুলিশকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউন জানিয়েছে, সন্দেহভাজনরা চীনা কনস্যুলেট ভবনে প্রবেশের চেষ্টা করে, এরপর তারা ফাঁকা গুলি ছুড়তে থাকে। দুই পক্ষের বন্দুকযুদ্ধে তিন হামলাকারীও নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সবমিলে প্রাণহানির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫-এ। ওই এলাকায় বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণের শব্দও শোনা গেছে। পরে পাকিস্তানের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গোটা এলাকা ঘিরে ফেলে। চলে দুই পক্ষের বন্দুকযুদ্ধ।

সেসময় দুই পুলিশ সদস্য ও তিন হামলাকারী নিহত হয়। দক্ষিণাঞ্চলীয় পুলিশের ডিআইজি জাভিদ আলম অধো জানান, নিহত তিন হামলাকারীর মধ্যে একজনের পরনে সুইসাইড ভেস্ট ছিল। তাছাড়া হামলাকারীদের কাছ থেকে সুইসাইড জ্যাকেট, অস্ত্র ও গোলা বারুদ উদ্ধার করা হয়েছে।

ডনের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গোলাগুলি শুরু হয়। পুলিশের এআইজি আমির আহমেদ শেখ জানিয়েছেন, হামলাকারীরা কনস্যুলেট ভবনের ভেতরে প্রবেশ করতে পারেনি। তিনি বলেন, ‘হামলার সময় ওই এলাকায় পুলিশ ও রেঞ্জারের সদস্যরা দায়িত্বরত ছিল। হামলাকারীরা তাদের গাড়ি ভেতরে নিয়ে গিয়েছিল, তবে চীনা দুতাবাস প্রাঙ্গণে প্রবেশ করতে পারেনি। তিনজনকেই হত্যা করা হয়েছে।

ওই এলাকায় বিস্ফোরক আছে কিনা তা পরীক্ষা করছে বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল।’ আমির শেখ আশ্বাস দেন, দিন শেষে সংবাদমাধ্যমগুলোকে এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানানো হবে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। একে পাকিস্তান ও চীনের কৌশলগত পারস্পরিক সহযোগিতার বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্র’ আক্যা দিয়েছেন তিনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *