পাকিস্তানে ১৫ জঙ্গি নিহত

বিদেশ : পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে সেনাবাহিনীর দুটি পৃথক অভিযানে ১৫ জঙ্গি নিহত হয়েছে। রোববার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম দ্য বিসনেস স্ট্যান্ডার্ড। কাউন্টার টেরোরিজম ডিপার্টমেন্টের (সিটিডি) একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, বেলুচিস্তানের মাসতুং এলাকায় বিচ্ছিন্নতাবিরোধী পৃথক একটি অভিযান পরিচালনা করে প্রাদেশিক কাউন্টার টেররিজম ডিপার্টমেন্ট (সিটিডি)। পৃথক ওই অভিযানে কমপক্ষে ৯ জন সন্ত্রাসী নিহত হন। নিহতরা সবাই নিষিদ্ধঘোষিত বালুচ লিবারেশন আর্মি (বিএলএ) ও বালুচ লিবারেশন ফ্রন্ট (বিএলএফ)-র সদস্য। তারা মাসুংয়ের রোশি পাহাড়ি এলাকায় লুকিয়ে ছিল। এরপর হেরনাই প্রদেশে আরেকটি অভিযানে ছয় জঙ্গিকে নিহত হন। নিহতদের মধ্য বেলুচিস্তান লিবারেশন আর্মি (বিএলএ)-র এক কমান্ডার তারিক ওরফে আলিয়াস নাসিরও ছিলেন। জানা গেছে, এ অভিযানের সময় বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছে। সিটিডি একজন মুখপাত্র জানান, এই জঙ্গিরা রোশনীতে প্রশিক্ষণ নেয়ার পর কোয়েটায় সন্ত্রাসী হামলা চালানোর পরিকল্পনা করছিল। বিএলএ এবং বেলুচ লিবারেশন ফ্রন্ট সাম্প্রতিক মাসগুলোতে প্রদেশের নিরাপত্তা বাহিনী, পুলিশ এবং নিরাপত্তা স্থাপনায় পরিচালিত অনেক সন্ত্রাসী হামলার দায় স্বীকার করেছে। সেনাবাহিনীর মিডিয়া বিষয়ক শাখা (আইএসপিআর) জানিয়েছে, বিদেশি অর্থ ও সহায়তাপুষ্ট জঙ্গিদের অবস্থানের নিশ্চিত তথ্য পেয়ে জামবোরো, হারনাই ও বেলুচিস্তানে সামরিক অভিযান শুরু করে নিরাপত্তা বাহিনী। তবে যখনই নিরাপত্তা বাহিনী এসব এলাকা ঘিরে ফেলে, তখন সেখান থেকে পালিয়ে যেতে এলোপাথাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু করে সন্ত্রাসীরা। এরপর দীর্ঘ সময় ধরে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সন্ত্রাসীদের গুলিবিনিময় হয়। উল্লেখ্য, গত মাসে নিরাপত্তা বাহিনীর আরেকটি অভ্যন্তরীন অনুসন্ধান অভিযানে দক্ষিণ ওয়াজিরিস্তান উপজাতীয় জেলায় ১০ জঙ্গি নিহত হন। জানা গেছে, ওই অভিযানে জঙ্গি ইসলামিক স্টেট (আইএস) গ্রুপের এক কমান্ডারও নিহত হয়েছিল। এর আগে, ৩০ আগস্টে মাস্টুংয়ে সিটিডি কর্মীদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সন্দেহভাজন ১১ জঙ্গি নিহত হন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!