পাবনার কলেজ ছাত্রী নওশিনের তুলির আঁচড়ে বিশ্বের বুকে ২য় স্থান অর্জন

পিপ (পাবনা) : পাবনা ইমাম গায্যালী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের ছাত্রী নওশিনের তুলির আঁচড়ে বাংলাদেশ বিশ্বের বুকে ২য় স্থান অর্জন করল। গত ১৬ অক্টোবর জাতিসংঘ ঘোষিত বিশ্ব খাদ্য দিবসের পোস্টার অংকন প্রতিযোগিতায় পাবনা ইমাম গায্যালী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী নওশিন ইয়াসমিন খান SDG Gi 2- Zero Hungar এর উপর জাতিসংঘ অন্তর্ভূক্ত সংস্থা ঋঅঙ এর উদ্যোগে এবং ইওওউ ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন করে বিশ্বের মধ্যে ২য় স্থান অধিকার করে। উক্ত প্রতিযোগিতায় বিশ্বের মোট ১৩০টি দেশের প্রতিযোগী অংশগ্রহন করে। এ প্রতিযোগিতায় ইংল্যান্ড ১ম, বাংলাদেশ ২য় ও আমেরিকা ৩য় স্থান অধিকার করে। পাবনার বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিষ্ট আব্দুল হামিদ খান ও অনুপ্রেরনা প্রদানকারী মমতাময়ী মা ঝর্ণা ইয়াসমিনের একমাত্র কন্যা নওশিন ইয়াসমিন খান।

FAO (Food and Agriculture Organization of the United Nations) এর পক্ষ হতে তাকে ২য় স্থান অর্জনকারী হিসাবে সনদ পত্র ও সম্মাননা পুরস্কার প্রেরন করে। এ জন্য সকলে আনন্দিত। জেনেভা থেকে প্রেরিত, সম্মাননা পুরস্কার ও সার্টিফিকেট ২৭ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১টায় প্রতিষ্ঠানের হাজার হাজার ছাত্রীদের মাঝে এক আনন্দঘন পরিবেশে তার হাতে তুলে দেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ সুরাইয়া সুলতানা।

এ সময় বক্তব্য রাখেন সকলের ইমাম গাযযালী স্কুলের অধ্যক্ষ সুরাইয়া সুলতানা, বিশিষ্ট সাংবাদিক- কলামিস্ট আব্দুল হামিদ খান, নওশিনের মাতা ঝর্ণা ইয়াসমিন, তার মামা লন্ডন প্রবাসী আব্দুল কাদের মাখন, সহকারী প্রধান শিক্ষক আইয়ুব হোসেন খান ও পুরষ্কার বিজয়ী নওশিন ইয়াসমিন খান।

এভাবে সকলে বিভিন্ন পাঠসহায়ক কার্যক্রমে যাতে সকল ছাত্রীরা আগ্রহী হতে পারে এ ব্যাপারে তাদের উৎসাহিত করেন। ইমাম গায্যালী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সুরাইয়া সুলতানাসহ সকল শিক্ষক বৃন্দ ও গভর্নিং বডির পক্ষ হতে নওশিন ইয়াসমিন খানকে এবং তার পিতা-মাতাকে ধন্যবাদ জানান এবং তার উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *