পাবনায় আ.লীগ ভোটারদের কাছে আর ঐক্য ফ্রন্ট দৌড়াচ্ছে মনোনয়নের পিছনে-প্রিন্স

রফিকুল ইসলাম সুইট, পাবনা : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পাবনায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও নেতাকর্মীরা ভোটারদের সাথে ব্যাপক গণ সংযোগ করলেও ঐক্য ফ্রন্ট নেতারা দৌড়াচ্ছে মনোনয়ন পিছনে। প্রার্থী চুড়ান্ত হওয়ায় ঐক্যবদ্ধভাবে ভোটের প্রচারে ব্যস্ত সময় পার করছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ঐক্য ফ্রন্ট থেকে কে পাচ্ছেন মনোনয়ন তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষন। প্রার্থী চুড়ান্ত না হওয়ায় মাঠে নামছে না ঐক্যফ্রন্ট এর নেতাকর্মীরা। পাবনার সচেতন মহল মনে করছে আওয়ামী লীগ ভোটারের আর ঐক্য ফ্রন্ট দৌড়াচ্ছে মনোনয়নের পিছনে।

জনাগেছে পাবনায় মোট ৪২ জন মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছেন এর মধ্যে বাদ পরেছেন ধানের শীষের একজনসহ ৪ জন। ধানের শীর্ষে মনোনয়ন বাতিল হওয়া প্রার্থী আবেদন করে মনোনয়নের বৈধতা পেয়েছেন।

পাবনার বিভিন্ন একালায় দেখা গেছে পাবনার ৫টি নির্বাচনী এলাকায় আওয়ামী লীগের ৫ জন মনোনয়ন পেয়েছেন। এরা দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকে এলাকায় ব্যাপক গন সংযোগ করে যাচ্ছেন। এ ছাড়াও র্নিবাচন প্রচার, সাংগাঠনিক কার্যকলাপ এবং গণসংযোগ ব্যাপক ভাবে করে যাচ্ছেন। আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন নিয়ে প্রত্যেকটি এলাকায় সাংগাঠনিক কাঠামো গঠন করে কাজ করে যাচ্ছেন। ভোর থেকে গভীর পর্যন্ত এসব কার্যক্রম চলছে। এ ছাড়াও নাগরিক সমাজ গঠন সহ নানা প্রক্রিয়া চালিয়ে যাচ্ছেন। পাবনা-৫ থেকে আওয়ামী লীগ মনোনয়ন প্রার্থী গোলাম ফারুক প্রিন্স ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত গনসংযোগ করে যাচ্ছে। তার পক্ষে বেশ কয়েকটি দল একই ভাবে শহর ও গ্রামে কাজ করে যাচ্ছে। পাবনা-২ থেকে মনোনয়ন পাওয়া প্রার্থী আহমেদ ফিরোজ কবির, পাবনা-৩ থেকে মনোনয়ন পাওয়া মো. মকবুল হোসেন, পাবনা-৪ থেকে মনোনয়ন পাওয়া শামসুর রহমান শরীফ ডিলু এবং পাবনা-১ থেকে মনোনয়ন পাওয়া শামসুল হক টুকু একই ভাবে নির্বাচনী কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

অপরদিকে ঐক্যফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন ৫টি আসনের বিপরীতে প্রায় ১৫ জন এ ছাড়াও রয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী যারা বিএনপি-জামায়াতের নেতা। এদের মধ্যে কে পাবেন মনোনয়ন সেটা এখনো বুঝতে পারছে না নেতাকর্মীরা। চুড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়ার জন্য অধিকাংশ নেতাই এখন ঢাকায়। স্বাভাবিকভাবেই নির্বাচনী কার্যক্রম তুলনামুল অনেক কম হচ্ছে মনে করছে সচেতন মহল। নেতাকর্মীরা এখন কোন প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন সেটা পরিস্কার হতে পারছে না। দলীয় কোন্দল এবং একাধিক দল কে পাবে মনোনয়ন সেই ব্যস্ততায় নেতারা ।

পাবনায় বিএনপি এবং জামায়াতের প্রার্থীরা সাধারণত মনোনয়ন পেয়ে থাকেন। এবার আরো যোগ হয়েছে গণ ফোরাম। কে পাবে ঐক্য ফ্রন্ট থেকে মনোনয়ন তা নিয়ে চরছে চুরচেরা বিশ্লেষন। কেউ কেউ মনে করছে জামায়াত বা বিএনপি যে যে আসনেই মনোনয়ন পাবে সেটা ভবিষতে তারাই মনোনয়ন পাবে সেটা নিয়েও চলছে হিসাব নিকাশ। কেউ কেউ মনে করছে জামাতের দুর্গে এবার বিএনপি ও গন ফোরাম ভাগ বসাবে। এসব নানা হিসেব এবং চুড়ান্ত মনোনয়ন পাওয়া নিয়ে ব্যস্ত ঐক্য ফ্রন্ট নেতাকর্মীরা। ফলে নির্বাচনী কার্যক্রম পিছিয়ে পড়ছে ঐক্যফন্ট মনে করছেন সচেতন মহল ও ভোটাররা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *