পাবনায় করোনা সংক্রমণ বাড়ছে; সংক্রমনের হার ১২ দশমিক ৫৯ শতাংশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : সারাদেশের মতো পাবনায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়েছে। মহামারির প্রথম থেকে কিছুটা নিয়ন্ত্রণে থাকলেও মঙ্গলবার এই সংক্রমন ছিল ১০ দশমিক ৬৭ শতাংশ। আজ বুধবার তা বাড়িয়ে ১২.৫৯ শতাংশ।
পাবনা সিভিল সার্জন অফিস সূত্র জানায়, গত ২৪ ঘন্টায় ৬৯৯ করোনা পরীক্ষার মধ্যে ৮৮ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে। জেলার নয় উপজেলার মধ্যে পাবনা সদর ও ঈশ্বরদী উপজেলায় করোনা সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি।
পাবনা জেলার সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণের হার ১২ দশমিক ৫৯ শতাংশ বলে জানান তিনি। যা এখন পর্যন্ত পাবনায় সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড। তিনি জানান, করোনা সংক্রমণ সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ায় এবং বিভিন্ন এলাকায় মানুষের নির্বিঘেœ চলাচলের ফলে পাবনাতেও করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাচ্ছে।
পাবনা জেলা সিভিল সার্জন অফিসের পরিসংখ্যান বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত পাবনা জেলায় তিন হাজার ৭৮৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।
পাবনায় শনাক্ত বেশীরভাগই ঈশ্বরদী উপজেলার রোগী বলে জানান সিভিল সার্জন। তিনি বলেন, ‘ঈশ্বরদীতে রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের কারণে বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ শ্রমিকের অবাধ চলাচলের ফলে ঈশ্বরদীতে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে, যার প্রভাব পড়েছে জেলার সার্বিক করোনা সংক্রমণে।’ জেলার মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর প্রায় এক তৃতীয়াংশই পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলাতে বলেও জানান তিনি।
ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. আসমা খান বার্তা সংস্থা পিপ‘কে বলেন, ‘এ পর্যন্ত ঈশ্বরদী উপজেলায় প্রায় ১২ শতাধিক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।’ গত দুই সপ্তাহে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। আক্রান্তদের বেশীরভাগই রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্পের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মচারী বলে জানান তিনি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *