পাবনায় কলেজ ছাত্র হত্যার প্রতিবাদে সহপাটি ও শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

পাবনা রিপোর্ট টোয়েন্টিফোর ডটকম: পাবনায় সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের শিক্ষার্থী মিশকাত মিশুর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্ঠান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে প্রতিবাদ মানবন্ধন করেছে কলেজের সহপাটি ও শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার সময় পাবনা শহরের আব্দুল হামিদ সড়কের প্রেসক্লাবেরে সামনে এই মানবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। শিক্ষার্থীরা কলেজের প্রশাসনকি ভবনের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল করে শহর প্রর্দক্ষীণ করে পরে তারা মানববন্ধনে মিলিত হয়। প্রতিবাদ মানবন্ধেনে সহপাটি, শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও পরিবারের সদস্যরা বক্তব্য রাখেন।

সহপাটি ও শিক্ষার্থীরা বলেন, মিশকাত শুধু আমাদের ভালো বন্ধুনা সে ভালো একজন মানুষ ছিলো। সামাজিক যেকোন কাজে সবার আগে ঝাঁপিয়ে পরতো। বিশেষ করে রক্তদান কর্মসূচীতে মিশকাত সবসময় এগিয়ে আসতো। আমরা আজ নিরাপত্বা হীনতায় ভুগছি। আমাদের কলেজে বখাটেদের উপদ্রব অনেক বেশি। কলেজে পরেনা এমন ছেলেরা প্রতিনিয়ত মেয়েদের উত্বক্ত করে টিস করে এমনকি গায়ে হাত পর্যন্ত দেয়। মিশকাত সবসময় প্রতিবাদ করতো। আর অন্যায়র প্রতিবাদ করার জন্য হইতো তাকে হত্যা করা হয়েছে। কারা কি কারনে হত্যা করেছে আমরা জানতে চাই। মিশকাতকে যারা হত্যা করেছে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। আজ মিশকাতের খুনীদের গ্রেফতার না করতে পরলে সন্ত্রাসীরা বেপরোওয়া হয়ে উঠবে। আমরা প্রশাসনের কাছে দাবী করছি আপনারা আমাদের নিরাপত্বা দেবেন। আর যেনো কোন মিশকাতকে অকালে সন্ত্রসীদের হাতে জীবন দিতে না হয়।

মানবন্ধনে নিহত মিশকাত মিশুর বাবা গোলাম মোস্তফা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমার ছেলে মিশকাত একটু আলাদা ধরনের ছিলো। লেখা পড়ার পাশাপাশি সামাজকি কাজে নিজেকে জড়িয়ে রাখতো। কারো বিপদ দেখলে সামনে এগিয়ে যেতো। সন্তান হারানো কষ্টোনিয়ে আমি আপনাদের সামনে দাড়িয়েছি। কারা কি কারনে মিশকাত কে হত্যা করলো আমরা পরিবারের পক্ষো থেকে জানতে চাই। এমন কি অপরাধ করেছিলো আমার সন্তান। সন্ত্রসীরা এখনো গ্রেফতা হয়নি। আমি হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবী করছি। আর যেনো কোন মায়ের কোল খালি না হয়।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার রাতে সরকারি এডওয়ার্ড কলেজে শিক্ষার্থী আহমেদ মিশকাত মিশু (২৪) কে মুঠোফোন ডেকে নিয়ে কলেজ চত্বরে ধারালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় সন্দেহভাজন একজনকে ইতমধ্যে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দিবাগত রাত দশটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।পাবনা পৌর এলাকার শিবরামপুর মহল্লার বাসিন্দা ও পাবনা কলেজের সহকারি অধ্যাপক গোলাম মোস্তফার ছেলে। মিসকাত মিশু পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের রসায়ন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে পাবনা শহরের রাধানগর এলাকায় প্রাইভেট পড়াতে যান মিশকাত মিশু। এ সময় তাকে মোবাইল ফোনে পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের ভিতরে ডেকে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। পরে মিশকাতকে এলোপাথারী ভাবে ধারালো অস্ত্রদিয়ে আঘাত করে পালিয়ে যায় সন্ত্রসীরা। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় মিশু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *