পাবনায় চোরাই মালামালসহ সংঘবদ্ধ চোর চক্রের সদস্য গ্রেফতার

পিপ (পাবনা) : পাবনার সুজানগর থেকে চুরি হওয়া বিপুল চোরাই মালামাল উদ্ধার করেছে পাবনা পুলিশ। এ ঘটনায় সংঘবদ্ধ চোর চক্রের এক সদস্যকে গ্রেফতারের পর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পাবনা শহরের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা মুল্যের এলইডি টিভি, মোবাইল ফোন, ট্যাব, সিলিংফ্যান ও টেবিল ফ্যান উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুরে পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা জানান। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিমা আখতার মিলি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম, বেড়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন, সুজানগর থানার ওসি বদরুদ্দোজা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ সুপার বলেন, পাবনা জেলার সুজানগর থানাধীন নাজিরগঞ্জ ইউনিয়নের অন্তর্গত উদয়পুর বাসস্ট্যান্ড মোড়ে ইলেকট্রনিক্স একটি দোকানে গত ইং ২৩/০৯/২০২০ তারিখ রাতে চুরি সংঘটিত হয়। এ সংক্রান্তে সুজানগর থানার মামলা নং-০২, তারিখ-০১/১০/২০২০ খ্রিঃ, ধারা-৪৬১/৩৮০ পেনাল কোড রুজু হয়। সুজানগর থানা পুলিশ উক্ত ঘটনার রহস্য উদঘাটনে ও চোরাই মালামাল উদ্ধারের জন্য তৎপর হয়। উক্ত চুরির ঘটনায় বাদীর এজাহারের বর্ণনা অনুসারে নগদ টাকা, এলইডি টিভি, মোবাইল ফোন, ট্যাব, সিলিংফ্যান ও টেবিল ফ্যানসহ সর্বমোট প্রায় ৪,২৭,০০০/-(চার লক্ষ সাতাশ হাজার) টাকার মালামাল চুরি হয়।

পরবর্তীতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে সন্ধিগ্ধ আসামী মোঃ বাবু প্রামানিক (২৫), পিতা-মৃত ছাত্তার প্রামানিক, সাং-কাচারীপাড়া, থানা ও জেলা-পাবনাকে গ্রেফতার করে ঘটনার বিষয় জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে এই মামলার ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয় স্বীকার করে এবং তার সহযোগীদের নাম উল্লেখ করে।

পাবনা জেলা পুলিশ সুপার, জনাব শেখ রফিকুল ইসলাম (বিপিএম, পিপিএম) এর নির্দেশে সহকারী পুলিশ সুপার, জনাব মোঃ ফরহাদ হোসেন, সুজানগর সার্কেল, পাবনার নেতৃত্বে জেলা গোয়েন্দা শাখা ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গ্রেফতারকৃত আসামী বাবুর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গ্রেফতারকৃত আসামী বাবুর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পাবনা সদর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের চোরাই কাজে ব্যবহৃত ১টি টয়োটা হায়েচ সুপার জিএল কালো রংয়ের মাইক্রোবাস উদ্ধার ও জব্দ করেন ।

এ ছাড়াও উক্ত চুরির ঘটনায় একটি ৩২’’ খঊউ টিভি, ৫ টি বিভিন্ন ব্রান্ডের মোবাইল ফোন, ১টি ১৮’’ ঝঅগঅটঘএ কম্পিউটার মনিটর, ১ টি ঝঅগঝটঘএ ইৎধহফ এর ট্যাব, ১ টি স্ট্যান্ড ফ্যান, ৩ টি প্রেসার কুকার , ১ টি হিটার কুকার, ১ টি গ্যাসের চুলা, ২ টি রাইচ কুকার এবং ১ টি ফ্লাস্ক উদ্ধার করা হয়।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *